শিরোনাম :
সংবর্ধনা সভায়  জসিমুল আনোয়ার খান- মানব সেবা হচ্ছে উক্তম সেবা        চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে র্র্যাব কর্তৃক অস্ত্র সহ গ্রেপ্তার ১ পটিয়ার ছনহরা ইউপি নির্বাচনে  চেয়ারম্যান প্রার্থী হচ্ছেন ওসমান আলমদার ! নুরুজ্জামান বিশ্বাসের আরপি ও খিদিরপুর বাজার স্কুল মাঠে নির্বাচনী পথসভা অনুষ্ঠিত মিথ্যা মামলার শিকার, ছাত্রনেতা ভিপি মঈন তুষার। খুলনা জেলা ডিবি পুলিশের অভিযানে ডুমুরিয়া এলাকা হতে ১কেজি গাঁজাসহ ২ জন গ্রেফতার। চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে টাইলস মিস্ত্রিরির মৃত্যু লক্ষ্মীপুরে পারিবারিক কলহে বৃদ্ধার আত্মহত্যা! পাদ্রিশীবপুর ইউপি নির্বাচনে জনপ্রিয়তার শীর্ষে রয়েছেন চেয়ারম্যান জাহিদুল হাসান বাবু চাঁপাইনবাবগঞ্জ ডিএনসির অভিযানে ১ হাজার পিস ইয়াবা সহ গ্রেফতার ১
মাটির নিচে সোনার সুড়ঙ্গ পেল বিজ্ঞানীরা

মাটির নিচে সোনার সুড়ঙ্গ পেল বিজ্ঞানীরা

বিবিএস নিউজ ডেস্কঃ
মাটির নিচে ৮০০ বছরের পুরোনো সোনার সুড়ঙ্গের খোঁজ পেলেন বিজ্ঞানীরা। খোঁজ মিলল যোদ্ধাদের গোপন সদর দফতরেরও। এখন শুধু খোঁড়াখুঁড়ি করে সেই সম্পত্তি তুলে আনার অপেক্ষা। উন্নত প্রযুক্তির লেজার প্রযুক্তি ব্যবহার করে এই সুড়ঙ্গের খোঁজ পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছেন বিজ্ঞানীরা।

ন্যাশনাল জিয়োগ্রাফিক চ্যানেলের বিজ্ঞানী লিন এবং তার দল সম্প্রতি ইসরায়েলে এই সোনার সুরঙ্গের খোঁজ পেয়েছেন। চ্যানেলটিতে তা সম্প্রচার করাও হয়েছে। লিন জানিয়েছেন, একাদশ শতকে ধর্মযুদ্ধের সময় ইসরায়েলের শহর একরির নিচে খ্রিষ্টান যোদ্ধারা সুড়ঙ্গ তৈরি করেছিলেন।ধর্মযুদ্ধ ছিল ইসরায়েলকে মুসলিম আধিপত্য থেকে মুক্ত করার, সেখানে খ্রিস্টধর্মের সূচনা করার। ধর্মযুদ্ধের সময় ইসরায়েলের ওই শহরই ছিল যোদ্ধাদের সদর দফতর।

সদর দফতর যাতে সহজে খুঁজে না পাওয়া যায়, তার জন্য একরি শহরের মাটির অনেকটা নিচে ওই সুড়ঙ্গ তৈরি করা হয়েছিল। গোপন সুড়ঙ্গ দিয়ে সদর দফতরে পৌঁছাতেন যোদ্ধারা।

এই সুড়ঙ্গ দিয়ে যুদ্ধের প্রয়োজনীয় সামগ্রী এবং সঙ্গে প্রচুর সোনা নিয়ে যেতেন যোদ্ধারা। তবে অনেক ইতিহাসবিদ মনে করেন, এই গোপন সুড়ঙ্গ সোনার মতো মূল্যবান সম্পদ নিয়ে যাওয়ার পাশাপাশি সেনাদের লুকিয়ে থাকা এবং বিপদে পড়লে অন্যত্র পালানোর রাস্তা হিসেবেও ব্যবহার করা হতো।
এতদিন সেই সুড়ঙ্গ এবং সদর দফতরের কথা জানা থাকলেও, তার প্রকৃত অবস্থান জানা ছিল না। এই প্রথম ৮০০ বছরের পুরোনো সেই সুড়ঙ্গের খোঁজ পেলেন বিজ্ঞানী লিন। তবে এই সুড়ঙ্গ মাটির ঠিক কতটা নিচে রয়েছে এবং তার বিস্তৃতি কতটা জায়গা জুড়ে রয়েছে তা জানার চেষ্টা এখনও চালিয়ে যাচ্ছেন বিজ্ঞানীরা।

ইসরায়েলের একরি শহরে মাটির ওপরে থাকা খ্রিষ্টান ধর্মযোদ্ধাদের সদর দফতরের ধ্বংসস্তূপ এখনও রয়েছে। বিজ্ঞানীদের অনুমান, আরও ভালো করে খোঁড়াখুঁড়ি করলে ধর্মযোদ্ধাদের লুকিয়ে রাখা অনেক সোনা উদ্ধার করা যাবে মাটির নিচের ওই সদর দফতর এবং সুড়ঙ্গ থেকে।(কপিরাইট বাংলাদেশী নিউজ)

ভালো লাগলে নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © bbsnews24 2020
Design BY NewsTheme
error: Content is protected !!