Logo

চুনারুঘাটে কার নির্দেশে থমকে গেছে উচ্ছেদ, অভিযান অবৈধ স্থাপনাকারিদে খুটির জোর কোথায়

মীর জুবায়ের আলমঃ হবিগঞ্জের চুনারুঘাট পুরনো খোয়াই নদীর দুই পারের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান প্রথম দিনেই থমকে গেছে। সারা দেশের ন্যায় সোমবার অভিযানের প্রথম দিন হবিগঞ্জের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাসুদ রানার উপস্থিতিতে পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তারা উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করেন। অবৈধ স্থাপনার তালিকায় বর্তমান ক্ষমতাসীন দলের অনেক নেতার ও পানি উন্নয়ন বোর্ডের এক কর্মকর্তার অবৈধ দোকানঘর রয়েছে অক্ষত। পুরনো খোয়াই নদীর খেয়াঘাটে দাঁড়িয়ে আছে অবৈধ কয়েকটি দোকান। পৌর কাউন্সিলরসহ অনেক প্রভাবশালী ব্যক্তির নাম তালিকায় থাকলেও তাঁদের স্থাপনায় হাত দেওয়া হয়নি। অথচ টং দোকান টিনশেড ঘর তৈরি করে যারা ব্যবসা করে দিনানিপাত করত তাদের উচ্ছেদ করা হয়েছে। এর ফলে অসহায় দোকানদার পরিবার-পরিজন নিয়ে রাস্তায় বসেছে। অবৈধ দখলদারদের তালিকায় দুই শতাধিক ব্যক্তির নাম থাকলেও ১৫-২০টি টিনশেড ও টং দোকান উচ্ছেদ করেই অভিযান রহস্যজনকভাবে থেমে গেছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুুক এক ব্যক্তি জানান, পাকুড়িয়া ও বড়াইল মৌজার পুরাতন খোয়াই নদীর উভয় পার দখল করে বড় বড় ইমারতসহ পুকুর পর্যন্ত তৈরি করে দখলে রাখা হয়েছে। তাদের হাত থেকে নদী পুনরুদ্ধার করা প্রয়োজন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Theme Created By ThemesWala.Com
error: Content is protected !!