Logo
শিরোনাম :
সাবেক আবহানী লিমিটেড গোল রক্ষক মোহাম্মদ আলীর ভাই জিন্নাত এর মৃত্যুতে ওয়াসিকা এমপি-এর শোক আশাশুনিতে মাস্ক পরিধান নিশ্চিত করতে ভ্রাম্যমাণ আদালতে জরিমানা আদায় চাঁপাইনবাবগঞ্জে দুঃস্থদের চাল মজুদ ও বিক্রির দায়ে চালসহ আটক ১ মধুপুরে পদবি পরিবর্তন ও বেতন গ্রেড উন্নীতকরণের দাবীতে পালিত হচ্ছে পূর্নদিবস কর্মবিরতি পাবনা জেলার শ্রেষ্ঠ অস্ত্র উদ্বারকারী পুলিশ অফিসার এস আই অসিত কুমার বাকেরগঞ্জে পৌর নির্বাচনী শো-ডাউন কেশবপুর পৌর মেয়র রফিকুল ইসলামের গণসংযোগ অব্যাহত চুনারুঘাটে অস্ত্রের আঘাতে ক্যাবল টিভি নেটওয়ার্ক লোকজন আহত পিরোজপুরে স্বামীকে মারধরের ঘটনায় মামলা করায় স্ত্রীকে হুমকি, প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন শার্শায় সিদ্দিক হোসেন বিশ্বাস স্মৃতি স্বরণে টুর্ণামেন্টের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত

বিশ্বের দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকত কক্সবাজারে ভ্রমণ প্রেয়সী মানুষের ভীড়

বিবিএস নিউজ ডেস্কঃ
বিশ্বের দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকত কক্সবাজারের প্রতি আকৃষ্ট সারাদেশের ভ্রমন প্রেয়সী মানুষ । তাই পর্যটকদের পদচারণায় মুখর সমুদ্র সৈকত। বড়দিনে সঙ্গে মিলিয়ে তিনদিনের ছুটিতে অনেকেই পরিববার নিয়ে সমুদ্র দেখতে ছুটে গেছেন কক্সবাজার। সব বয়সের মানুষের আনন্দ আর হৈ-হুল্লোড়ে সৃষ্টি হয়েছে ভিন্ন পরিবেশ। পর্যটন সংশ্লিষ্টদের দাবি, এই মৌসুমে সমন্বয় করে প্রশাসন যেন পর্যটকদের নিরাপত্তা দেয়।

কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতের সাগর তীরে যেন চলছে উৎসব। সব বয়সের মানুষের আনন্দ আর উচ্ছ্বাসে মাতোয়ারা পুরো সাগর তীর।

শীত মৌসুম, শীতল সাগর। তাই পর্যটকরা সমুদ্র স্নান, জেড স্ক্রী কিংবা ব্যানানা বোটে ঘুরে দেখছেন সাগরের স্বচ্ছ নীল জলরাশি। আবার কেউ কেউ সৈকতে বালিয়াড়িতে মেতেছেন পরিবার-পরিজন নিয়ে।

এক নারী পর্যটক জানান, বাংলাদেশে এতো বড় একটা সমুদ্র সৈকত যা না দেখেলেই না।

অন্য একজন জানান, ছেলে-মেয়েদের বার্ষিক পরীক্ষা শেষ সেজন্য তাদের নিয়ে আনন্দ করতে এখানে এসেছি।

পর্যটন মৌসুমে কানায় কানায় পূর্ণ সৈকত। তাই প্রশাসনকে সমন্বয় করে পর্যটকদের নিরাপত্তা জোরদার করার দাবি, হোটেল মালিক সমিতির।

কক্সবাজার হোটেল মালিক সমিতির মুখপাত্র আবু তালেব শাহ বলেন, পর্যটকদের নিরাপত্তা ট্যুরিস্ট রয়েছে, জেলা পুলিশ রয়েছে। সেই সাথে এখানকার আনসার বাহিনীসহ অন্যরাও পর্যটকদের নিরাপত্তা দিতে সজাগ রয়েছে।

ট্যুরিস্ট পুলিশের কর্মকর্তা জানালেন, সৈকতসহ পর্যটন স্পটগুলোতে পর্যটকদের নিরাপত্তায় সার্বক্ষণিক দায়িত্ব পালন করছেন তারা।

কক্সবাজার ট্যুরিস্ট পুলিশ সহকারী পুলিশ সুপার মো. ফখরুল ইসলাম বলেন, আমাদের পুলিশ বাহিনীর একটি টিম টহলে রয়েছে। সেই সাথে আমাদের একটি মোবাইল কোর্টও পর্যটকদের নিরাপত্তা দিতে প্রস্তুত রয়েছে।

কক্সবাজারের হোটেল মোটেল জোনে পর্যটকদের রাত্রি যাপনের জন্য চার শতাধিক হোটেল, মোটেল ও রিসোর্ট, সবই কানায় কানায় পূর্ণ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Theme Created By ThemesWala.Com
error: Content is protected !!