Logo
শিরোনাম :
শার্শায় স্বাস্থ্য পরিদর্শক ও স্বাস্থ্য সহকারীদের কর্ম বিরতি গরু ব্যবসায়ীর সাড়ে তিন লাখ টাকা ছিনিয়ে মাইক্রোবাস চাপা দিয়ে হত্যা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ! শিক্ষার্থীরা ঘরের বাইরে-বইয়ের বাইরে সীমান্তে পুলিশ ও বিজিবির পোশাকে স্বর্ণ,মাদক চোরাচালানি পণ্য আটকের অভিযোগ উঠেছে ফুটবলার ডিয়েগো ম্যারাডোনা আর নেই পঞ্চগড়ে বিজিবির হাতে ৭ পিস BR, ১৬ পিস ইয়াবা,২০ গ্রাম গাঁজা সহ একটি বাইসাইকেল জব্দ করা হয় বান্দরবানের লামায় পাহাড়ের খাদে লরি ট্রাক চারজন স্বপ্নবাজ তরুণের উদ্যোক্তা হওয়ার গল্প সাতক্ষীরায় পরকীয়ার জরিয়ে অন্তঃসত্ত্বা নিজস্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে হত্যা। পঞ্চগড়ে ফুটবল একাডেমীর ৫ জন প্রমিলা ফুটবলারের প্রিমিয়ার লীগে খেলার সুযোগ

শার্শায় ৩ বছরের ছেলে আবিরের হার্ড ছিদ্র রোগে আক্রান্ত,আর্থিক সাহায্যের আবেদন

সেলিম আহম্মেদ,বিশেষ প্রতিনিধিঃ
যশোরের শার্শার হতদরিদ্র পরিবারের সন্তান ট্রলিচালক মনিরুল ইসলামের ৩ বছর বয়সের ছেলে আবির হোসেন হার্ড ছিদ্র রোগে আক্রান্ত হয়ে অর্থাভাবে চিকিৎসা করতে না পারায় মৃত্যুর পথযাত্রী। শিশু আবিরের চিকিৎসার জন্য প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা এবং সমাজের সর্বশ্রেণীর মানুষকে আর্থিক সাহায্যের আবেদন জানিয়েছেন তার পরিবার।

শার্শার উপজেলার লাউতাড়া গ্রামের সামান্য ট্রলিচালক মনিরুল ইসলামের জমিজমা ও লেখাপড়া না থাকায় স্ত্রী নিয়ে অতিকষ্টে জীবিকা নির্বাহ করে আসছেন।অতিকষ্টের মাঝে এখান থেকে তিন বছর আগে তাদের সংসারে আসে একটি পুত্র সন্তান। নাম রাখা হয় আবির হোসেন। অতি আনন্দে তাদের সংসার চলছিল। কিন্তু জম্মের দু মাসের মাথায় আবির গুরুতর অসুস্থ হলে যশোর একটি হাসপাতালে প্রায় এক মাস ধরে চিকিৎসা করে সুস্থ না হওয়ায় বর্তমানে ঢাকা ন্যাশনাল হার্ড ফাউন্ডেশন হাসপাতাল এ্যান্ড রিসার্ড ইনস্টিটিউটে আবিরকে পরীক্ষা নিরীক্ষা করে তার হার্ড ছিদ্র রোগে আক্রান্ত হয়েছে বলে ডাক্তার জানান।

২০১৬ সাল থেকে অদ্যাবধি পর্যন্ত দরিদ্র মনিরুল ইসলাম অভাব অনটনের সংসারে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে রাতদিন ট্রলি চালিয়ে কাজ করে এবং গ্রামের জমিজমা বিক্রিসহ ধার ও ৠণ করে তার শিশু পুত্রের চিকিৎসা করে আসছিলেন। বর্তমানে নিঃস্ব হয়েও তারপরও ছেলেকে বাঁচাতে থেমে নেই মনিরুল। বর্তমানে তার সংসারে আবির ও স্ত্রী নিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছেন।কিন্তু আর কতদূর? রোগ যে আরও বেশি জেকে বসেছে তাকে।

ডাক্তার বলেছেন,আবিরের হার্ড ছিদ্র রোগের অপারেশন ও চিকিৎসা মিলে ব্যয় হবে প্রায় ১০/১২ লাখ টাকা। শিশু আবিরের হার্ড ছিদ্র জরুরিভাবে অপারেশন করতে হবে। অন্যথায় রোগটি ক্রমাগত বৃদ্ধি পাবে।

আবিরের বাবা ট্রলিচালক মনিরুল ইসলাম বলেন, ২০১৬ সাল থেকে আজ পর্যন্ত অর্ধাহারে অনাহারে থেকেও দিনমুজুর কাজ এবং গ্রামের জমিজমা বিক্রি করাসহ টাকা ধার ও ৠণ করে মেয়ের চিকিৎসা করে আসছি। চিকিৎসকের তথ্যমতে আবিরকে বাঁচাতে প্রায় ১০/১২ লাখ টাকা লাগবে। আমার সাধ্য নেই এই বিশাল পরিমাণ টাকা চিকিৎসার জন্য সরবরাহ করার।
তাইতো তার পুত্রকে বাঁচাতে মমতাময়ী মা দেশরত্ন প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা এবং সমাজের সর্বশ্রেণীর মানুষকে আর্থিক সাহায্যের আবেদন জানিয়েছেন।

বিত্তবান যেসব ব্যক্তিরা মনিরুল ইসলামের ছেলে শিশু আবিরকে বাঁচাতে সাহায্য করতে অগ্রহী তারা আর্থিক সাহায্যে করবেন- ফাস্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক, নাভারন শার্শা যশোর সঞ্চয়ী হিসাব নং- ৯৭৫১। যোগাযোগ ও মোবাইল নম্বর- বিকাশ ঃ মনিরুল ০১৯৮২৩১৩১৫০, লাউতাড়া, শার্শা যশোর সাহায্য পাঠানোর জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন।

সমাজের বিত্তবানদের পাশাপাশি মানবতার মা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আবির নামের শিশুটিকে সুস্থ করে তুলতে তার পাশে সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিবেন এমন প্রত্যাশা এলাকাবাসীর।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Theme Created By ThemesWala.Com
error: Content is protected !!