Logo
শিরোনাম :
কণ্ঠশিল্পী বেবি নাজনীন ও রিজিয়া পারভীন করোনায় আক্রান্ত সাবেক আবহানী লিমিটেড গোল রক্ষক মোহাম্মদ আলীর ভাই জিন্নাত এর মৃত্যুতে ওয়াসিকা এমপি-এর শোক আশাশুনিতে মাস্ক পরিধান নিশ্চিত করতে ভ্রাম্যমাণ আদালতে জরিমানা আদায় চাঁপাইনবাবগঞ্জে দুঃস্থদের চাল মজুদ ও বিক্রির দায়ে চালসহ আটক ১ মধুপুরে পদবি পরিবর্তন ও বেতন গ্রেড উন্নীতকরণের দাবীতে পালিত হচ্ছে পূর্নদিবস কর্মবিরতি পাবনা জেলার শ্রেষ্ঠ অস্ত্র উদ্বারকারী পুলিশ অফিসার এস আই অসিত কুমার বাকেরগঞ্জে পৌর নির্বাচনী শো-ডাউন কেশবপুর পৌর মেয়র রফিকুল ইসলামের গণসংযোগ অব্যাহত চুনারুঘাটে অস্ত্রের আঘাতে ক্যাবল টিভি নেটওয়ার্ক লোকজন আহত পিরোজপুরে স্বামীকে মারধরের ঘটনায় মামলা করায় স্ত্রীকে হুমকি, প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

পপ তারকা ৬১ বছরের ম্যাডোনা প্রেমে মজেছেন ২৫ বছরের যুবক ।

১৯৭৭ সালে ক্যারিয়ার শুরু করেন মার্কিন পপ তারকা ম্যাডোনা। দুই বছর পর শোনা যায়, ড্যান গিলোরির সঙ্গে প্রেম চলছে তাঁর। ড্যান গিলোরি থেকে শুরু করে তাঁর প্রেমিকের তালিকাটা কিন্তু বেশ লম্বা। সেই তালিকায় আছে মার্কিন গ্রাফিতি শিল্পী জিন-মিশেল বাসকুয়েট, জন এফ কেনেডি জুনিয়র, মাইকেল জ্যাকসন, ভ্যানিলা আইস, জন বেনিটেজ, শন পেন, ওয়ারেন বেটি, টনি ওয়ার্ড, কার্লোস লিওন, অ্যান্ডি বার্ড, গাই রিচি, জিসাস লুজ, ব্রাহিম জাইবাত, কেভিন স্যামপায়ো…
প্রেমিকদের এই তালিকার শেষ কোথায়? সেই প্রশ্নের জবাব ম্যাডোনা নিজেও জানেন না। তবে তালিকায় সম্প্রতি যুক্ত হলেন আহমালিক উইলিয়ামস। ২৫ বছর বয়সী এই পুরুষের প্রেমে মজেছেন ৬১ বছর বয়সী ম্যাডোনা। ভালোবাসার যে কোনো বয়স নেই, আবার সেই প্রমাণ দিলেন ম্যাডোনা। পেজ সিক্স ও টিএমজেডের প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, গত বছর ডিসেম্বরে ম্যাডোনা আহমালিকের মা–বাবাকে নৈশভোজে আমন্ত্রণ জানান। আর সেখানেই তাঁদের ছেলের প্রতি নিজের ভালোবাসার কথা জানান ম্যাডোনা।

উইলিয়ামসের বাবা ড্রিউ জানিয়েছেন, তাঁর বা তাঁর স্ত্রীর এ ব্যাপারে কোনো আপত্তি নেই। ম্যাডোনা যেমন তাঁর সন্তানের চেয়ে বয়সে বড়, তাঁর স্ত্রী আবার তাঁর চেয়ে বয়সে ছোট। এমনটা হতেই পারে। এগুলো কোনো আপত্তির বিষয় নয়। ম্যাডোনা তাঁর ছেলের চেয়ে ৩৬ বছরের বড় হলে কী হবে, এই সম্পর্ক নিয়ে খুবই খুশি এই মা–বাবা। ড্রিউ বলেছেন, ‘ভালোবাসার কোনো বয়স নেই। আমার সন্তানের সম্পর্ক নিয়ে আমি খুশি। আর ম্যাডোনাও এই সম্পর্কের ব্যাপারে সিরিয়াস।’

বেস্ট সেলিং নারী রেকর্ডিং শিল্পী হিসেবে গিনেস বুকে নাম রয়েছে ম্যাডোনার। তাঁর গাওয়া ৪৬টি গান ইউকে চার্টের সেরা পাঁচে স্থান পেয়েছে। ম্যাডোনার সবচেয়ে জনপ্রিয় গানগুলোর মধ্যে রয়েছে ‘লাইক আ ভার্জিন’, ‘হ্যাং আপ’, ‘হলিডে’, ‘লা ইসলা বোনিতা’, ‘লাইক আ প্রেয়ার’ ইত্যাদি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Theme Created By ThemesWala.Com
error: Content is protected !!