শিরোনাম :
৯ বছরে ৯ বিয়ে, রয়েছে ৪ প্রেমিকা চুনারুঘাটে চা শ্রমিকের বসতঘরে অগ্নিকান্ড।। ২০ লাখ টাকা ক্ষয়ক্ষতি চুনারুঘাটে দুই প্রতিবেশীর ১৬ বছরের বিরোধ সালিশে নিষ্পত্তি ক্যান্সার আক্রান্ত মেয়েকে বাঁচাতে পথে পথে এক গরীব পিতা হরিরামপুরে হোটেল মালিক ও হোমিও চিকিৎসককে জরিমানা উলিপুরে থেতরাই ইউনিয়নে রাস্তা মেরামতের কাজ করলো তারুণ্যের ঐক্য সমাজকল্যাণ সোসাইটি খুলনার ঐতিহ্যবাহী বটিয়াঘাটা প্রেসক্লাবের মাসিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত অবশেষে ঢুকলো ভারতের পেঁয়াজের ট্রাক শার্শা সীমান্তের ইছামতি নদী থেকে অজ্ঞাত এক যুবকের লাশ ভাসছে লক্ষ্মীপুরে বিপুল পরিমাণ বিদেশী বিয়ারসহ গ্রেপ্তার -১
মনিরামপুরের সাবেক মেম্বর আমিনুর ও তার সহযোগীদের কারণে অতিষ্ঠ এলাকাবাসী : ক্রমাগতই বেড়ে চলেছে থানায় জিডি ও কোর্টে মামলা

মনিরামপুরের সাবেক মেম্বর আমিনুর ও তার সহযোগীদের কারণে অতিষ্ঠ এলাকাবাসী : ক্রমাগতই বেড়ে চলেছে থানায় জিডি ও কোর্টে মামলা

আফজাল হোসেন চাঁদ, নিজেস্ব প্রতিবেদকঃ (ঝিকরগাছা) যশোর \ যশোরের মনিরামপুর উপজেলার স্বরণপুর গ্রামের বাবর আলীর ছেলে সাবেক মেম্বর আমিনুর রহমান ও তার সহযোগী মীর তারা মীরের ছেলে রফিকের কারণে অতিষ্ঠি হয়ে থানায় সাধারণ ডায়েরী করেছে পটি গ্রামের মৃত. আব্দুল মোড়লের ছেলে আকরাম হোসেন। সাধারণ ডায়েরীতে উল্লেখ করেছেন, পূর্ব শত্রুতার জের ধরিয়া গত ১৬/১২/২০১৯ইং তারিখ বিকাল অনু: সাড়ে ৪টার সময় পটি পশ্চিমপাড়া গ্রামস্থ জনৈক নুর ইসলামের চায়ের দোকানের সামনে আমাকে দেখিয়া অকথ্য মভাষায় গালিগালাজ করিতে থাকে। তখন আমি বিবাদীদের গালিগালাজ করতে নিষেধ করিলে বিবাদীদ্বয় আমাকে এলাপাতাড়ী ভাবে কিল, ঘুষি, লাথি মারিয়া আমার শরীরের বিভিন্ন জায়গায় নীলা ফোলা জখম করে। আমার ডাক চিৎকারে আশপাশের লোকজন আগাইয়া আসিলে বিবাদীদ্বয় আমাকে সহ আমার পরিবারের লোকজনদের বড় ধরণের ক্ষয়তি করা সহ আমাকে বিভিন্ন ধরণের ভয়ভীতি ও খুন জখমের হুমকি প্রদর্শন করে। মনিরামপুর থানায় জিডি নং ৯০। তাং ০৩/০১/২০২০ইং।
এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, সম্প্রতি ০২/০১/২০২০ইং তারিখে বেলা ১২টার সময় রোহিতা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আনসার আলীর কার্যালয়ে পটি গ্রামের জমিজমা সংক্রান্ত একটি সালিশের মিমাংশার জন্য বসা হয় এবং উক্ত সালিশটি পায় মিমাংশার পথে থাকলেও সাবেক মেম্বর আমিনুর রহমান সেই সালিশটাকে বানচাল করে দেন। তখন সালিশে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের রোহিতা ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের সভাপতি ইমদাদুলের উপর চড়াও হয় এবং এটার বিষয়ে পরিষদের গ্রাম পুলিশ আলী কদর ঘটনা শান্ত করতে এগিয়ে আসলে তিনি (সাবেক মেম্বর আমিনুর রহমান) তার উপরও ক্ষিপ্ত হয়। স্বরণপুর গ্রামের মেম্বর আমিনুর রহমানকে বিবাদী করিয়া গত ১১/৩/২০১৮ইং তারিখ যশোরের বিজ্ঞ অতি: চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আমলী আদালতে স্বরণপুর গ্রামের মৃত দাউদ হোসেন বিশ্বাসের ছেলে তরিকুল ইসলাম বাদি হয়ে মোকদ্দমা ৪২০/৪৬৫/৪৬৭/৪৬৮/৪৭১/১০৯ বা: দ: বি: মোতাবেক জাল জালিয়াতি ও প্রতারণার মামলা করেন। গত ০২/০৮/২০১৮ ইং তারিখ যশোরের বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে স্বরণপুর গ্রামের মৃত দাউদ হোসেন বিশ্বাসের ছেলে রমজান আলী বাদি হয়ে আমিনুর রহমানকে বিবাদী করিয়া মোকদ্দমা ১৪৪/১৪৫ ফৌ: কা: বি: মোতাবেক দখলীয় সম্পত্তি জোর জবরানে দখল করায় মামলা করেন এবং পটি গ্রামের মৃত আ: হামিদের ছেলে আক্তারুজ্জামান বাদী হয়ে সাবেক মেম্বর আমিনুর রহমান ও তার সহযোগী রফিকের বিরুদ্ধে যশোরের বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট মনিরামপুর আমলী আদালতে তাদের বিরুদ্ধে গত ১৮/১২/২০১৯ইং তারিখে মোকদ্দমা ৫০০/৫০১ দন্ডবিধি মোতাবেক মানহানি মামলা দায়ের করেন। একই বাদি একই দিনে আসামীদ্বয়ের বিরুদ্ধ যশোরের বিজ্ঞ নিবার্হী ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে মোকাদ্দমা ১০৭/১১৪/১১৭ (সি) ফৌ: কা: বি মোতাবেক মামলা দায়ের করেছেন। এই মামলা গুলো সবই বর্তমানে চলমান রয়েছে বলে জানাগেছে।
এছাড়াও গত ১১/০২/২০১৮ ইং তারিখে যশোরের বিজ্ঞ সিনিয়র সহকারী জজ আদালতে (মনিরামপুর) স্বরণপুর গ্রামের সাবেক মেম্বর আমিনুর রহমান নিজে বাদি হয়ে তাদের একই গ্রামের মৃত. দাউদ আলীর দু’ছেলে রমজান আলী ও তরিকুল ইসলাম এর মৃত. দাউদ আলীর স্ত্রী নূরজাহানকে বিবাদী করে একটি দেওয়ানী (স্বত্ব প্রচার বাবদ) মামলা করেন। যে মামলার প্রকৃত পক্ষে তার নিকট কোন কাগজপত্র না থাকায় আমিনুর রহমান সেই মামলা নিজেই উত্তোলন করেন বলে জানাগেছে।
এই বিষয়ে সাবেক মেম্বর আমিনুর রহমানের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, তারা আমার নামে যে মামলা করেছে আমি সেগুলো জবাব দিয়েছি। আর ইউনিয়ন পরিষদের বিষয়টির মিলমিশ হয়ে গেছে।

ভালো লাগলে নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © bbsnews24 2020
Design BY NewsTheme
error: Content is protected !!