Logo
শিরোনাম :
ঝিকরগাছার গদখালী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের ধান কাটার কর্মসূচী শার্শা সাংবাদিক কল্যাণ সংস্থায় ভোরের চেতনা পত্রিকার আলোচনা সভা ব্যবসায়ী রফিক মুন্সির ব্যবসায় অবনতি, মাথায় হাত জবি উপাচার্যের সাথে সমকাল পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদকের সৌজন্য সাক্ষাৎ আশাশুনিতে মাস্ক ব্যবহার নিশ্চিত করতে ইউএনও’র ভ্রাম্যমাণ আদালতে জরিমানা আদায় পোরশায় উপনির্বাচনে নব নির্বাচিত দুই ওয়ার্ড সদস্যের শপথ গ্রহন উখিয়াতে ঝুকিপূর্ণ বাজার ব্যবস্থাপনাঃদেখা নেই অগ্নিনিবার্পক যন্ত্র পিতৃ হন্তারক ঢাকা থেকে গ্রেফতার বাণিজ্য সহজীকরনে বেনাপোল বন্দরে যৌথ এন্ট্রি শাখার উদ্বোধন শার্শা সাংবাদিক কল্যাণ সংস্থায় ভোরের চেতনা পত্রিকার আলোচনা সভা

খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদের সদস্য পার্থ ত্রিপুরা জুয়েলকে হত্যার উদ্দেশ্য সন্ত্রাসীরা রাত ১ঃ৩০ মিনিটে হামলা করে।

খাগড়াছড়ি জেলা
প্রতিনিধি ঃ-

খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের অন্যতম সদস্য পার্থ ত্রিপুরা জুয়েল’কে ছুরিঘাতে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় অভিযুক্তদের মধ্যে মোঃ শাফায়েত উল্ল্যাহ (২৯) নামে ১ জনকে আটক করেছে খাগড়াছড়ি সদর থানার পুলিশ। আটককৃত শাফায়েত উল্ল্যাহ প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে হত্যাচেষ্টায় জড়িত থাকার ঘটনা স্বীকার করেছে। সে শালবনের মৃত আব্দুল আলী মিয়ার সন্তান।

মঙ্গলবার (৭ জানুয়ারি) রাত আনুমানিক দেড়টার দিকে পার্থ ত্রিপুরা জুয়েলের নিজ বাসভবনে তাকে হত্যাচেষ্টার করে সন্ত্রাসীরা। এ হত্যাচেষ্টার অপর আসামি হলেন মোঃ জামাল হোসেন ওরফে কালা জামাল। তার নামে খাগড়াছড়ি সদর থানায় চাঁদাবাজি ছিনতাইসহ ৭টি মামলা চলমান রয়েছে। সে শালবন শাপলা মোড় এলাকার মৃত মীর হোসেনের পুত্র।

পার্থ ত্রিপুরা জুয়েল বলেন-
আমি কাজ কর্ম সেরে প্রতিদিনের মত ঘুমাতে যাই। তারপর রাত ১২.৫৮ মিনিট থেকে কয়েকবার আমাকে (পার্থ ত্রিপুরা জুয়েল) মোবাইল নাম্বারে ফোন দিয়ে পিছনের দরজা দিয়ে তাকে ডাকাডাকি করতে থাকে অজ্ঞাত লোক। এক পর্যায়ে রাত দেড়টায় আমি (পার্থ ত্রিপুরা জুয়েল) ঘরের জানালা খুললে শালবনের জামাল ওরফে কালা জামাল এবং শাফায়েত উল্ল্যাহকে দরজার সামনে দাঁড়ানো দেখতে পায়। তখন আমি এতো রাতে এখানে কি? দরকারে এসেছো জানতে চাইলে জামাল হোসেন ওরফে কালা জামাল বলেন জরুরি দরকার আছে, বাইরে আসেন। ইতোমধ্যে কথার আওয়াজ শোনে আমার (পার্থ ত্রিপুরা জুয়েল)এর বোন জুলি ত্রিপুরা এবং আমার স্ত্রী মিরা ত্রিপুরা জাগ্রত হয়ে আমার কাছে চলে আসেন। তখন তিনি তাদের সাথে নিয়ে দরজা খোললে জামাল হোসেন ওরফে কালা জামাল তার ডান হাতের নিচে লুকিয়ে রাখা ধারালো ছুড়ি দিয়ে আমাকে (পার্থ ত্রিপুরা জুয়েল)বুকে আঘাত করলে আমার বোন জুলি (ত্রিপুরা পার্থ ত্রিপুরা জুয়েল) আমাকে ধাক্কা দিয়ে সরিয়ে দেয়। এতে তিনি অল্পের জন্য প্রাণে বেঁচে যান। তারপর পরিবারের সদস্যদের আত্মচিৎকারে জামাল হোসেন ওরফে কালা জামাল ও শাফায়েত উল্ল্যাহ দৌড়ে পালিয়ে যায়। জামাল হোসেন ওরফে কালা জামাল দৌড়ে পালানোর সময় বলতে থাকেন, ‘আমরা শালবনের ক্যাডার, সুযোগমত পেলে তোমাকে মেরে লাশ গুম করে ফেলব’। এসময় অজ্ঞাত আরো ৫-৭ জনও জংগল থেকে বের হয়ে দৌড় দেয়। যা পূর্ব পরিকল্পিত একটি জঘন্য পরিকল্পনা ছিল।আমি এই সন্ত্রাসীদের বিচার চাই।

খাগড়াছড়ি সদর থানার
এজাহারের ভিত্তিতে আজ শালবন পৌর এলাকায় অভিযান চালিয়ে শাফায়েত উল্ল্যাহ (২৯) কে আটক করে পুলিশ।

এ ঘটনায় পার্থ ত্রিপুরা জুয়েল বলেন, আওয়ামী লীগের মধ্যে বিভাজন সৃষ্টিকারী একটি গোষ্ঠী আমার রাজনৈতিক এবং আর্থ-সামাজিক ক্যারিয়ারে ঈর্ষান্বিত হয়ে একটি সন্ত্রাসী মদদপুষ্ট গোষ্ঠী আমার পিছু নিয়েছে। তারা আওয়ামী লীগের উন্নয়নকে বাধাগ্রস্ত করতে চায়। তারা আমার উপর যতই আক্রমণ করুক না কেন এতে আমি আরো বেশি মুজিব আদর্শে উজ্জীবিত হয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে দেশের উন্নয়নে এগিয়ে যাব।

এ ঘটনায় পুলিশ একজনকে আটক করেছে। এই ন্যাক্কারজনক ঘটনার প্রধান আসামি জামাল হোসেন ওরফে কালা জামালকে আটক করতে হবে। এর মূল ইন্ধনদাতাকে খোঁজে বের করে তাদেরকে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানিয়েছেন তিনি।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে খাগড়াছড়ি সদর থানার (ওসি) মোহাম্মদ আব্দুর রশিদ বলেন, মামলার প্রধান আসামী মোঃ জামাল হোসেন ওরফে কালা জামাল আমাদের তালিকাভুক্ত আসামী। তার নামে থানায় ৭টি মামলা রয়েছে। তাকে আটক করতে জোর চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। এ ঘটনায় শাফায়েত উল্ল্যাহ(২৯) নামে এক আসামীকে আটক করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে হত্যাচেষ্টার কথা স্বীকার করেছে। আগামীকাল তাকে কোর্টে চালান করে রিমান্ড আবেদন করা হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Theme Created By ThemesWala.Com
error: Content is protected !!