Logo
শিরোনাম :
সভাপতি মাহবুব পলাশ, সাধারন সম্পাদক বিজয় ধর বাংলাদেশ সাংবাদিক পরিষদ ( বাসাপ) এর কমিটি গঠন জনকন্ঠের রেজা নওফল বিএমএসএফ ঢাকা জেলার নতুন আহবায়ক মনোনীত ১০ লক্ষ টাকার মাছ নিধন সিংড়ায় লীজকৃত পুকুর দখলের পায়তারা চাটমোহরে আগুনে ৫টি ঘর পুড়ে ছাই ৬ লাখ টাকার ক্ষতি শার্শা উপজেলা যুবলীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত ৪ দিবস ইংরেজি নববর্ষকে সামনে রেখে গদখালীর ফুল চাষীরা পার করছেন ব্যাস্ত সময় বীরমুক্তিযোদ্ধা পুলিশের অবসরপ্রাপ্ত অফিসার আব্দুল মালেক’র রাষ্ট্রীয় মর্যাদা দাফন সম্পন্ন! চাঁপাইনবাবগঞ্জ র্র্যাবের মাদক বিরোধী অভিযানে ইয়াবা সহ গ্রেপ্তার ১ বাঁশখালীতে পল্লী উন্নয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ের শহীদ মিনার উদ্বোধন করেন জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সাব্বির ইকবাল‌ আশাশুনিতে খ্রিস্টান এসোসিয়েশনের আলোচনা সভা

কলারোয়ায় ৩১ হাজার ৭শ’র অধিক শিশুকে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে

আসাদুজ্জামান আসাদ,কলারোয়া সাতক্ষীরাঃ
কলারোয়া উপজেলার ১২টি ইউনিয়ন ও পৌরসভায় আগামী ১১ জানুয়ারি ৩১ হাজার ৭০০শত ৩২জনের অধিক শিশুকে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। মঙ্গলবার সকালে কলারোয়া হাসপাতালের হল রুমে উপজেলা পর্যায়ের এ্যাডভোকেসি ও পরিকল্পনা সভায় এ তথ্য জানানো হয়। জাতীয় ভিটামিন-এ প্লাস ক্যাম্পেইন পালন উপলক্ষে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ওই সভার আয়োজন করে। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের এর অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্য ও প.প কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ জিয়াউর রহমানের সভাপতিত্বে, প্রধান অতিথির বক্তৃতা দেন-উপজেলা নির্বাহী অফিসার আরএম সেলিম শাহনেওয়াজ। বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন-উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মোজাফ্ফর উদ্দীন,ডাঃ বেলাল হোসেন, ডাঃ ফাহদী আল মাসুদ, উপজেলা ফ্যামিলি প্লানিং অফিসার জাহাঙ্গীর হোসেন, উপজেলা এমটিইপিআই রেজোয়ান উল্ল্যা ও কলারোয়া পৌর প্রেস ক্লাবের সভাপতি জুলফিকার আলী প্রমুখ। সভায় উপজেলার স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের সকল কর্মকর্তা এবং বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তারা অংশগ্রহণ করেন। এবছর কলারোয়া উপজেলার ১২টি ইউনিয়ন ও পৌরসভায় ৬ হতে ১১ মাস বয়সী ও ১২ হতে ৫৯ মাস বয়সী ৩১ হাজার ৭০০শত ৩২জন শিশুকে ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানোর লক্ষ্য মাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। অপুষ্টি জনিত অন্ধত্ব ও শিশু মৃত্যু প্রতিরোধের লক্ষে আগামী ১১ জানুয়ারি দেশব্যাপী ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইন পালিত হবে। ঐ দিন সকাল আটটা হতে বিকাল চারটা পর্যন্ত শিশুদের বিনামূল্যে একটি করে ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। স্থায়ী টিকাদান কেন্দ্রের পাশাপাশি কলারোয়া বাজারের গুরুত্বপূর্ণ স্থান সমুহে অস্থায়ী টিকাদান কেন্দ্রে শিশুদের ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানোর ব্যবস্থা থাকবে। ছয় হতে ১১ মাস বয়সী শিশুকে নীল রঙের ক্যাপসুল ও ১২-৫৯ মাস বয়সী শিশুকে লাল রঙের ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। তবে অসুস্থ শিশু ও বিগত চার মাসের মধ্যে ভিটামিন এ ক্যাপসুল প্রাপ্ত শিশুকে এই ক্যাপসুল খাওয়ানো যাবে না। ভিটামিন এ অপুষ্টি জনিত অন্ধত্ব নিমূর্লের পাশাপাশি শিশুকে দীর্ঘ মেয়াদি ডায়রিয়া, রাতকানা হতে রক্ষা করে শিশুর মৃত্যুর ঝুঁকি ২৪ শতাংশ কমায়। শিশুকে হাম ও মারাত্বক অপুষ্টি হতে দূরে রাখে এবং শিশুর রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Theme Created By ThemesWala.Com
error: Content is protected !!