Logo
শিরোনাম :
বদরগঞ্জ পৌরসভার হিসাব রক্ষকের কক্ষে রহস্যজনক চুরি উচ্চ শিক্ষা অর্জন করে দেশে কৃষিকাজ করা লজ্জার বিষয় নয় বলেন,বিভাগীয় কমিশনার বাইশারীতে ইয়াবা সহ এক দোকানদার আটক“স্থানীয়দের দাবী ঘটনাটি পরিকল্পিত চক্রান্ত” বেনাপোল ভবারবেড় থেকে ১কেজি ভারতীয় গাঁজা সহ ১জন আটক মির্জাপুর ইউনিয়ন ছাত্র লীগের সাধারণ সম্পাদকের ২৫তম জন্মদিন পালন। ফুলবাড়ী‌তে স্বাস্থ্য সহকারী‌দের কর্মবির‌তি বাকেরগঞ্জ স্বাস্থ্য সহকারীদের কর্মবিরতি সাপাহারে ঐতিহ্যবাহী জবই বিলকে ঘিরে পর্যটন কেন্দ্র গড়ে তোলার চেষ্টা চলছে খাদ্যমন্ত্রী তেঁতুলিয়ায় পুলিশ ও শ্রমিক সংঘর্ষের প্রায় এক বছর , প্রকাশ্যে ঘুরছে মুলহোতারা ঝিকরগাছার কৃতি সন্তান আনোয়ার হোসেনকে প্রেসিডিয়াম সদস্য করায় আনন্দ র‌্যালী

আজ বাংলাদেশ চলচ্চিত্রের কিংবদন্তী কৌতুক অভিনেতা দেলদারের জন্মদিন!

স্টাফ রিপোর্টার:আজ বাংলাদেশ চলচ্চিত্রের কিংবদন্তী তারকা খ্যাত কৌতুক অভিনেতা দেলদারের ৭৫ তম জন্মদিন।
দীর্ঘ ১৬ বছর অতিক্রম হলেও আজও পূরণ হয়নি তার শূন্যতা। এক সময় চলচ্চিত্রের পর্দায় আনন্দ ফেরি করেছেন তিনি। তার অভিনয় দেখে দুঃখ ভুলেছেন কোটি কোটি দর্শক।
তার মৃত্যুর পর এই অভিনেতা আজও রয়ে গেছেন মানুষের হৃদয়ে, এবং মুখে মুখে।

২০০৩ সালের ১৩ জুলাই এই কমেডি সুপারস্টার শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। এরপর দিলদার অভিনীত ছবিগুলো সিনেমা হলে কিংবা টেলিভিশনের পর্দায় যখনই প্রচার হয় দর্শকরা তাকে নিয়ে আফসোস করেন। দিলদারের মৃত্যুর পর তার মতো কেউ আর আসেননি।

আজ ১৩ জানুয়ারি, এই নন্দিত অভিনেতার জন্মদিন। ১৯৪৫ সালের ১৩ জানুয়ারি চাঁদপুরে জন্মগ্রহণ করেন দিলদার। তিনি এসএসসি পাস করার পর পড়াশোনার ইতি টানেন।

তিনি প্রথমে চলচ্চিত্র আসেন‘কেন এমন হয়’ নামের চলচ্চিত্র দিয়ে ১৯৭২ সালে অভিনয় জীবন শুরু করেন দিলদার। দীর্ঘদিনের ক্যারিয়ারে উপহার দিয়েছেন ‘বেদের মেয়ে জোসনা’ ‘বিক্ষোভ’, ‘অন্তরে অন্তরে’, ‘কন্যাদান’, ‘চাওয়া থেকে পাওয়া’, ‘শুধু তুমি’, ‘স্বপ্নের নায়ক’, ‘আনন্দ অশ্রু’, ‘অজান্তে’, ‘প্রিয়জন’, ‘প্রাণের চেয়ে প্রিয়’, ‘নাচনেওয়ালী’সহ অসংখ্য জনপ্রিয় সব চলচ্চিত্র।

দিলদার এতটাই জনপ্রিয় ছিলেন যে তাকে নায়ক করে নির্মাণ করা হয়েছিল ‘আব্দুল্লাহ’ নামে একটি চলচ্চিত্র। সুপারহিট হয়েছিল সেই ছবিও। তার বিপরীতে নায়িকা ছিলেন জনপ্রিয় নায়িকা নূতন। দারুণ জনপ্রিয়তা পেয়েছিল আব্দুল্লাহ ছবিতে ঠাঁই পাওয়া গানগুলো।

সেরা কৌতুক অভিনেতা হিসেবে ২০০৩ সালে ‘তুমি শুধু আমার’ চলচ্চিত্রের জন্য জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারও লাভ করেন তিনি। দিলদারের স্ত্রী রোকেয়া বেগম। এই দম্পতির দুই কন্যা সন্তান। বড় মেয়ের নাম মাসুমা আক্তার। ছোট মেয়ে জিনিয়া আফরোজ।

যে মানুষটা সিনেমার প্রাণ হয়ে ছিলেন, দর্শকদের বসিয়ে রেখেছেন ঘণ্টার পর ঘণ্টা আনন্দ-কৌতুকে সেই মানুষটার জন্মদিন চলে যায় আজ নিরবে নিভৃতে। তবুও কেউ কেউ মনে রাখে। বাংলা চলচ্চিত্রের ইতিহাসে উজ্জ্বল হয়ে থাকবে দিলদারের নাম। চাইলেই দিলদারের মতো অভিনেতাকে ভোলা যায় না।
আমরা অভিনেতা দেলদারের জন্য দোয়া করি তিনি মানুষের দুঃখ কষ্ট ভোলাতে তার কারিশমায় মানুষকে হাসিয়ে মন ভালো রাখতে সহায়ক হয়েছিলেন।আল্লাহ তাকে তুমি এই উছিলায় জান্নাত দান করুন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Theme Created By ThemesWala.Com
error: Content is protected !!