Logo
শিরোনাম :
বদরগঞ্জ পৌরসভার হিসাব রক্ষকের কক্ষে রহস্যজনক চুরি উচ্চ শিক্ষা অর্জন করে দেশে কৃষিকাজ করা লজ্জার বিষয় নয় বলেন,বিভাগীয় কমিশনার বাইশারীতে ইয়াবা সহ এক দোকানদার আটক“স্থানীয়দের দাবী ঘটনাটি পরিকল্পিত চক্রান্ত” বেনাপোল ভবারবেড় থেকে ১কেজি ভারতীয় গাঁজা সহ ১জন আটক মির্জাপুর ইউনিয়ন ছাত্র লীগের সাধারণ সম্পাদকের ২৫তম জন্মদিন পালন। ফুলবাড়ী‌তে স্বাস্থ্য সহকারী‌দের কর্মবির‌তি বাকেরগঞ্জ স্বাস্থ্য সহকারীদের কর্মবিরতি সাপাহারে ঐতিহ্যবাহী জবই বিলকে ঘিরে পর্যটন কেন্দ্র গড়ে তোলার চেষ্টা চলছে খাদ্যমন্ত্রী তেঁতুলিয়ায় পুলিশ ও শ্রমিক সংঘর্ষের প্রায় এক বছর , প্রকাশ্যে ঘুরছে মুলহোতারা ঝিকরগাছার কৃতি সন্তান আনোয়ার হোসেনকে প্রেসিডিয়াম সদস্য করায় আনন্দ র‌্যালী

উত্তেজনার মধ্যেই মহাকাশ ‘দখলে’র পথে ইরান

বিবিএস আন্তজার্তিক ডেস্কঃ
এই মুহূর্তে আমেরিকা ও ইরানের মধ্যে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। আর এই উত্তেজনার মধ্যেই এবার মহাকাশ ‘দখলে’র পথে এগুচ্ছে তেহরান।
জানা গেছে, খুব শিগগিরই একেবারে দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি অত্যাধুনিক স্যাটেলাইট মহাকাশে পাঠাতে যাচ্ছে তেহরান। অত্যাধুনিক এই কৃত্রিম স্যাটেলাইটের নাম দেওয়া হয়েছে ‘জাফার’।

দেশটির গণমাধ্যমে বলা হয়েছে, ইরানের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে এই উপগ্রহ তৈরি করা হয়েছে। ইরানের মহাকাশ সংস্থা আইএসএ এমনটাই তথ্য জানিয়েছে।

সংস্থাটি আরও বলেছে, ইরানি বিজ্ঞানীদের দেড় বছরের প্রচেষ্টায় স্যাটেলাইটটি উৎক্ষেপণের জন্য পরিপূর্ণভাবে প্রস্তুত করা হয়েছে। ৯০ কেজি ওজনের এই কৃত্রিম উপগ্রহে রয়েছে চারটি কালার ক্যামেরা। এসব ক্যামেরা ভূপৃষ্ঠের ছবি ধারণ করে তা কন্ট্রোলরুমে পাঠাবে।

এর আগে গত বছর জানুয়ারিতে ইরানের তৈরি পায়াম স্যাটেলাইটের উৎক্ষেপণ করা হয়। কিন্তু প্রযুক্তিগত বেশ কিছু সমস্যা থাকায় সেই মিশন ব্যর্থ হয়। শেষ পর্যায়ে স্যাটেলাইটটি কক্ষপথে পৌঁছতে পারেনি।

ফলে ফের একবার মহাকাশ দখলের ছক কষছে ইরান। নতুন জাফার স্যাটেলাইটটি আকার ও ওজনের দিক থেকে পায়াম স্যাটেলাইটের মতো হলেও এতে নতুন কিছু বৈশিষ্ট্য যুক্ত করা হয়েছে। জাফার স্যাটেলাইটের ইমেজ রেজ্যুলেশন হচ্ছে ৮০ মিটার।

উল্লেখ্য, ইরান ২০০৯ সালে প্রথম উমিদ বা আশা নামের কৃত্রিম উপগ্রহ মহাকাশে পাঠায়। ইরানি বিজ্ঞানীরা নিজেরাই সেটি তৈরি করেন। একেবারে দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি করা হয় স্যাটেলাইটটি।

এর পর ২০১০ সালে মানুষ যেতে পারে এমন মহাকাশযান মহাকাশে পাঠায় তেহরান। এই মহাকাশযান পাঠানোর জন্য কাভেশগার বা অভিযাত্রী-৩ নামের রকেট ব্যবহার করা হয়।

এ ছাড়া ২০১৫ সালে ফজর বা ঊষা নামে কৃত্রিম উপগ্রহ পাঠিয়েছে ইরান। এটি উঁচুমানের ছবি তুলে তা পৃথিবীতে পাঠাচ্ছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Theme Created By ThemesWala.Com
error: Content is protected !!