Logo
শিরোনাম :
শার্শায় ফেনসিডিল ও মোটরসাইকেল সহ একাধিক মাদক মামলার আসামী আটক ঠাকুরগাঁওয়ে নারী মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার সাবধানে চালাবো গাড়ি, নিরাপদে ফিরবো বাড়ি- নিরাপদ সড়ক দিবসে উদ্ভাক মিজান……………. চাঁপাইনবাবগঞ্জে পুলিশ ফাঁড়ির মাদক বিরোধী অভিযানে গ্রেফতার ২ ঈশ্বরদীতে ৫০ লিটার চোলাই মদসহ দুই মাদক ব‍‍্যবসায়ীকে আটক করেছে ঈশ্বরদী থানা পুলিশ চাঁপাইনবাবগঞ্জে রুপালী এনজিওর মালিক উজ্জল কোটি টাকা নিয়ে উধাও বেনাপোলে ফেনসিডিল সহ মোটরসাইকেল উদ্ধার নৌযান শ্রমিকদের ধর্মঘট প্রত্যাহার আশাশুনিতে রাস্তা ও মন্দির পরিদর্শন এবং মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করলেন ইউএনও বাকেরগঞ্জ উপজেলার সনাতন ধর্মাবলম্বীর সবাইকে শারদীয় দুর্গাপূজার শুভেচ্ছা

বেনাপোলে বিকাশে প্রতারণার মাধ্যমে টাকা হাতিয়ে নিল প্রতারক চক্র

বেনাপোল প্রতিনিধিঃ বেনাপোলে বিকাশে প্রতারণার মাধ্যমে প্রতরণা করে শাহাজান কবির নামে এক নিরীহ ব্যক্তির ২৬ হাজার ৬শত পঁচিশ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে প্রতারক চক্র।

বৃহস্পতিবার (৬ ফেব্রুয়ারী) ৩ টার সময় প্রতারক চক্র তার কাছ থেকে এ টাকা হাতিয়ে নেয়।

ভুক্তভোগী শাহাজান জানান, তার বাড়ি শার্শার নিজামপুরে। সে বেনাপোলে জয়ী ট্রেড নামে একটি সিএন্ডএফ এজেন্ট এ বর্ডারম্যান হিসাবে চাকুরী করেন। বৃহস্পতিবার (৬ ফেব্রুয়ারী) তার বসের আমদানিকৃত পণ্য ডেলিভারি ছিল। সেই পণ্য ডেলিভারি জন্য তার বস ঢাকা থেকে তাকে তার পার্সোনাল বিকাশ নাম্বার এ ১৩ হাজার ২শত ষাট টাকা পাঠায়। তখন তিনি তার পার্সোনাল বিকাশ নাম্বারটি নিয়ে বেনাপোল ছোটআঁচড়া মোড়ে অবস্থিত তৌহিদের বিকাশের দোকান থেকে সাড়ে ১২ হাজার টাকা তোলেন। সেই টাকা তুলে নিয়ে তিনি তার অফিসে যাওয়ার ১০ মিনিট পর ০১৮৮৮-৪৭৩৭২১ এই নাম্বারে কল দিয়ে বলে, ভাই আমি তৌহিদ বলছি। তখন আমি তাকে জিজ্ঞেস করি কোন তৌহিদ। সে বলে এই যে কিছুক্ষন আগে সাড়ে বারো হাজার টাকা উঠিয়ে নিয়ে গেলেন যে বিকাশের দোকান থেকে সেই দোকানদার। আমি বললাম বলেন। সে বললো আমার বিকাশের ১২ হাজার টাকার হিসাব পাচ্ছি না। তাই আমি বিকাশের অফিসে কল দিয়ে আপনার নাম্বার সহ মোট ৪টি নাম্বার বন্ধ করে দিয়েছি। এখন আমি বাড়ি এসে আমার টাকার হিসাব পেয়েছি। আপনার বিকাশ নাম্বার যদি পুনরায় চালু করতে চান, তাহলে আমি ৫টার পর দোকানে আসবো, তখন আপনার বিকাশ চালু করে দেবো। তখন আমি বলি আমার তো মাল ডেলিভারি আসে। আমার তো টাকার প্রয়োজন। সে তখন বলে, তাহলে আমি অফিসে ফোন করে দিচ্ছি। তারা আপনার বিকাশ চালু করে দেবে। তারা যেভাবে বলে, সেভাবে কাজ কইরেন বলে সে লাইন কেটে দেয়।
সে লাইন কেটে দেবার ৫ মিনিট পর ০১৪০৭-৩০৮৩০৫ নাম্বারে কল দিয়ে বলে আমি বিকাশ অফিস থেকে বলছি। আপনার বিকাশ নাম্বারটি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। আপনার বিকাশ নাম্বারটি পুনরায় চালু করতে চান? আমি বলি হ্যা। তখন সেই বিকাশ অফিসার বলেন, আপনি যে টাকাটা বিকাশের মাধ্যমে তুলেছেন, সেই টাকাটা আবার আপনার বিকাশ নাম্বারে ভোরেন। আমি তখন আমার বিকাশ নাম্বার এ সাড়ে ১২ হাজার টাকা ভরি। তখন সে আমার বিকাশের পিন নাম্বার বলে, আমাকে বলে এটা কি আপনার পিন নাম্বার, এটা কি সঠিক। আমি বলি হ্যা। সে তখন বলে আচ্ছা ঠিক আছে, আপনার নাম্বার চালু হয়ে যাবে। বলে লাইন কেটে দেয়। লাইন কাটার কয়েক মিনিট পর আবার ওই নাম্বার থেকে কল করে ঐ অফিসার বলে, আপনি তো খরচসহ ১২ হাজার ৭শত ত্রিশ টাকা উঠাইছেন। আপনার বিকাশ নাম্বার এ ১২ হাজার ৭শত ত্রিশ টাকাই আবার ভরতে হবে। তা নাহলে আপনার বিকাশ নাম্বার চালু হবে না। আমি বলি এতো টাকা আমি এখন কোথায় পাবো। তখন অফিসার বলে কয়েক মিনিট পর আপনার বিকাশ নাম্বার ঠিক হয়ে গেলেই তো আপনার টাকা ফেরত পাচ্ছেন। তারপর আমি ১নং গোডাউনের সামনে এক বিকাশের দোকান থেকে বাকিতে ওই টাকাটা লোড দিই। দিয়ে ওই অফিসারকে বলি হ্যা টাকা লোড দিয়েছি। তখন ওই অফিসার লাইন কেটে দেয়। পরে আমার একাউন্ট ব্যালেন্স চেক করে দেখি আমার ব্যালেন্সে থাকা ১৩৯৫ টাকা ৬৩ পয়সা সহ আমার ঢোকানো সাড়ে ১২ হাজার টাকা ও ১২ হাজার ৭শত ত্রিশ টাকা মোট ২৬ হাজার ৬শত পঁচিশ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে প্রতারক চক্র।

সেই থেকে আজ পর্যন্ত বিভিন্ন দ্বারে দ্বারে ঘুরেও, আমি আমার টাকা উদ্ধারের কোন প্রতিকার পাচ্ছি না।

বিকাশ এজেন্ট এর স্টেটমেন্ট অনুযায়ী দেখা যায়, ০১৮৫৮-১১৬৫৪১ এই নাম্বারে প্রতারক চক্র উক্ত টাকা হাতিয়ে নিয়েছে।

বিকাশ কাস্টমার কেয়ার এর ১৬২৪৭ নাম্বারে কল দিয়ে অভিযোগ জানালে, তারা কিছু তথ্য নিয়ে জানান বিষয়টি উদ্ধর্তন কর্মকর্তাদের জানানো হবে। আর আপনারা যদি আইনি ব্যবস্থা নিতে চান, তাহলে নিতে পারেন।

এ ব্যাপারে, বেনাপোলের সচেতন মহল মনে করেন, এই ডিজিটাল যুগেও কিভাবে প্রতারক চক্র টাকা হাতিয়ে নেয়। যেখানে সীমসহ সব কিছু ফিঙ্গার প্রিন্ট দিয়ে লিপিবদ্ধ করা। আর কারাই বা এর সাথে জড়িত?


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Theme Created By ThemesWala.Com
error: Content is protected !!