শিরোনাম :
২০৮ উপজেলা-ইউনিয়ন পরিষদে ভোটগ্রহণ চলছে ভোলায় কলেজ ছাত্র সবুজের অপারেশনের দায়িত্ব নিলেন-এমপি মুকুল পাটগ্রামে গোলাম রব্বানী প্রধান জনমতে এগিয়ে রাত চাঁপাইনবাবগঞ্জের ২ ইউনিয়ন পরিষদ উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে বগুড়া আদমদিঘী বাজারে ও নওগাঁ পাইকারী বাজারে আলুর লাগামহীন মূল্যে -বিপাকে ক্রেতারা যশোরের নাভারণে ভেজাল শিশু খাদ্যসহ কারখানা মালিক আটক বাংলাদেশের রাকিমের তোলা ছবি ছয় হাজারেরও বেশি ছবির মাঝে সেরা চাঁপাইনবাবগঞ্জ ডিবি পুলিশের আবারও সাফল্য ; সোয়া ২ কেজি গাঁজা সহ গ্রেপ্তার ১ চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে পৃথক অভিযানে অস্ত্র সহ ২ জন অস্ত্র ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করেছে র্র্যাব নোয়াখালীতে কিশোর গ্যাংয়ের ৭ সদস্য গ্রেফতার
মুন্সীগঞ্জে নামের মিল থাকায় ইউপি সদস্যকে ফাঁসানোর পায়তারা

মুন্সীগঞ্জে নামের মিল থাকায় ইউপি সদস্যকে ফাঁসানোর পায়তারা

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি: মুন্সীগঞ্জে নিষিদ্ধ পপি (অপিয়ম) চাষের সাথে জড়িত চাষীর নামের সাথে মিল থাকায় মোল্লাকান্দি ইউনিয়নের ইউপি সদস্য স্বপন দেওয়ানকে ফাঁসানোর চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। স্থানীয় সুত্র জানায়, বাংলাবাজার ইউনিয়নের বানিয়াল মহেশপুর পূর্বকান্দি এলাকায় স্থানীয় জমির মালিক মো: নুরুজ্জামান নান্নু সরদার,মো: রফিকুল ইসলাম,রুহুল আমিন সরকার । এই তিনজনের প্রায় ৩ একর জমি ভাড়া নেয় পপি চাষিরা। পরে সেখানে তারা পপি চাষ করে। পপি চাষিরা হলেন, মো: নিজাম মিজি, মো: খোরশেদ আলম মিঝি ওরফে খুইশ্যা। স্থানীয়দের দাবি এই পপি চাষে আরো একজন যুক্ত ছিলেন, মোল্লাকান্দি ইউনিয়নের চরডুমুরিয়া গ্রামের বিল্লাল মিয়ার ছেলে স্বপন। এই স্বপন হলো আফিম চাষি নিজাম মিঝির শ্যালক। এই নিষিদ্ধ পপি ( অপিয়ম) চাষের বিষয়টি যখন স্থানীয় চেয়ারম্যানসহ এলাকার লোক জানতে পারে তখন নিজাম জানায় যে, এগুলো মালয়েশিয়ান সয়াবিন গাছ। এর পর পরই নিজাম ও তার শ্যালক স্বপন ট্রাক্টর দিয়ে চাষকৃত পপি গাছগুলো ধবংস করে দেয়। পরদিন খবর পেয়ে উপজেলা সহকারী কমিশনার ভুমি ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মেজবাহ উল সাবেরিন ওই জমিতে গিয়ে পপি গাছগুলো জব্দ করে। এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে মুন্সীগঞ্জ সদর থানায় মাদ্রক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে মামলা করেন। মামলার এজাহার সুত্রে জানাগেছে, নিষিদ্ধ অপিয়ম (পপি) চাষ করার অভিযোগে মো: নিজাম মিঝি, মো: খোরশেদ আলম আসামী করা হয়েছে। মামলাটি বর্তমান তদন্দাধীন রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ ।
অন্যদিকে দীর্ঘ ১০ বছর ধরে মোল্লাকান্দি ইউনিয়নের ইউপি সদস্য স্বপন মেম্বার স্থানীয় জমির মালিকদের জমি ভাড়া নিয়ে আলু চাষ করে আসছিলো। এবছরও তিনি প্রায় ১২ একর জমিতে আলু আবাদ করেছে। তার আবাদ করা একটি জমির পাশেই নিজাম মিঝি গংরা নিষিদ্ধ পপি চাষ করে। এই খবর জানাজানি হওয়ার পরপরই্ কৌশলে একটি চক্র নিজাম মিঝির শ্যালকের নাম গোপন করতে স্বপন মেম্বারের নাম প্রচার করতে থাকে। এ নিয়ে বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় ইউপি সদস্য স্বপনকে জড়িয়ে বিভিন্ন পত্রিকায় ও অনলাইনে পোটার্লে নিউজ প্রচার হওয়ায় ব্যাপাক সমালোচনার ঝড় উঠে।এতে করে ফুসে উঠেছে মোল্লাকান্দির ইউনিয়নের দুটি পক্ষের একটি পক্ষ। আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নিবার্চন ও স্থানীয় আ”লীগের পদ পদবিকে কেন্দ্র করে এক পক্ষ অপর পক্ষকে দমাতে মেম্বারের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচাচ্ছে। মোল্লাকান্দির স্থানীয় রাজনীতি প্রতিহিংসা এখন পপি চাষকে হাতিয়ার বানিয়ে ফায়দা লুটার চেষ্টাও করছে একটি চক্র। এমনটাই জানিয়েছে সাধারন মানুষ। প্রকৃতপক্ষে পক্ষে মেম্বার পপি চাষের সাথে জড়িত নয়। পপি চাষের পাশের জমিতে তিনি আলু চাষ করেছে এর সুত্র ধরে অসাধু চক্র মেম্বারকে ফঁাসাতে চেষ্টা করেছে বলে দাবী স্থানীয়দদের।#

ভালো লাগলে নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © bbsnews24 2020
Design BY NewsTheme
error: Content is protected !!