Logo
শিরোনাম :
চাঁপাইনবাবগঞ্জে ডিবির পৃথক অভিযানে মাদক সহ ৩ জন আটক চাঁপাইনবাবগঞ্জে হত্যা মামলার ৭ আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে সিআইডি নলছিটিতে পৌর নির্বাচনে মেয়র পদে কেএম মাসুদ খানের প্রার্থীতা বহালের নির্দেশ সুপ্রিমকোর্টের জেলা ক্রীড়া পরিষদের কার্যক্রম ইউনিয়ন পর্যায়ে সক্রিয় না থাকায় যুবকরা আজ মাদকাশক্ত পৌরসভাসহ স্থানীয় সরকার নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের বিভাগীয় টিম’র প্রথম প্রস্তুতিমুলক সভা   চাটমোহরের নব নির্বাচিত পৌর মেয়র ও কাউন্সিলরদের অভিষেক অনুষ্ঠান-অনুষ্ঠিত নাইক্ষ্যংছড়ি থানার আলমগীর হোসেন ৫ম বারের মত জেলার শ্রেষ্ঠ ওসি মনোনীত বাগেরহাটে ৪৮হাজার করোনা ভ্যাকসিন পাঠাবে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর চাঁপাইনবাবগঞ্জের কানসাটে র্র্যাবের হাতে অস্ত্র সহ আটক ১ রাণীশংকৈলে দিন ব্যাপী পিঠা উৎসবের উদ্বোধন

এবার কুরিয়ারের মাধ্যমে টাঙ্গাইলের এক পঙ্গু পরিবহন শ্রমিকের জন্য খাদ্য সামগ্রী ও ঈদ উপহর পাঠালেন শার্শার উদ্ভাবক মিজান

জসিম উদ্দিন, বিশেষ প্রতিনিধি : এবার কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে টাঙ্গাইলের এক অসহায় পঙ্গু পরিবহন শ্রমিকের জন্য খাদ্য সামগ্রী ও ঈদ উপহার পাঠিয়ে আরো একটি বিরল দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন যশোরের শার্শা উপজেলার কৃতি সন্তান দেশ সেরা উদ্ভাবক মিজানুর রহমান মিজান।

পঙ্গু পরিবহন শ্রমিকের নাম নুরুল ইসলাম পারভেজ। সে টাঙ্গাইল জেলার বিল্লাল হোসেনের ছেলে।

মঙ্গলবাৱ (১৯ মে) সন্ধ্যা ছয় টার সময় পর এস এ পরিবহন কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে গোডাউন ব্রীজ সংলগ্ন পুরাতন বাসষ্টান্ড টাঙ্গাইলে পারভেজের পরিবারের জন্য এ খাদ্য ও ঈদ উপহার পাঠিয়েছেন।

উদ্ভাবক মিজান বলেন, নুরুল ইসলাম পারভেজের সাথে আমার ফোনে পরিচয়। তার সমস্যার কথা তিনি আমার সাথে শেয়ার করেন। আমি সেই মোতাবেক তাকে যতটুকু সম্ভব সাহায্য করার চেষ্টা করেছি এবং এরপর আমি আরো সাহায্য করব তাকে এ অঙ্গীকার করেছি।

তার জন্য আমি যে খাদ্য সামগ্রী ও ঈদ উপহার পাঠালাম তার মধ্যে চাল ১৫ কেজি, আলু ৭ কেজি, ডাল ৩ কেজি, তৈল ১ কেজি, পেঁয়াজ ২ কেজি , সেমাই, চিনি, নুডুলস, গরম মসলা বাদাম কিসমিস ইত্যাদি।

ঈদে যা লাগে আমি হয়তো সবকিছু দিতে পারিনি তবে কিছুটা দেয়ার চেষ্টা করেছি এবং পরবর্তীতে তাকে আরও কিছু সহযোগিতা করার চেষ্টা করব ইনশাল্লাহ।

এ বিষয়ে মুঠোফোনে নুরুল ইসলাম পারভেজের সাথে কথা হলে তিনি বলেন, আমি অতি গরীব ঘরের সন্তান। আমার বাবা একজন চায়ের দোকানদার। আমার স্ত্রী, এক ছেলেকে নিয়ে কোন রকম খেয়ে না খেয়ে দূর্বিসহ জীবন যাপন করছি।

আমি মোটর গাড়ির ড্রাইভার ছিলাম। বিগত (১০ এপ্রিল) ২০১৭ সালে কারেন্টে শর্ট লাগার কারণে দুই হাত কেটে বাদ দিতে হয়েছে। আজ আমি পঙ্গু।

আমার মালিক তার মোটরগাড়ি দেখাশোনার কাজের জন্য আমাকে রেখেছেন। যার জন্য প্রতিমাসে ছয় সাত হাজার টাকা দেন আর এ দিয়ে কোন রকমে সংসার টেনেটুনে চলে যাচ্ছে।

এমতাবস্থায় যশোরের শার্শার দেশ সেরা উদ্ভাবক মিজান ভাইয়ের সাথে আমার আলাপ হয় তাকে আমি সবকিছু খুলে বলতেই তিনি আমাকে সহযোগিতা করার কথা বলে আশ্বস্ত করেন।

আমি উদ্ভাবক মিজান ভাইয়ের মাধ্যমে দেশের বিত্তবান ব্যক্তিদের কাছে আকুল আবেদন করছি এবং সবাই যদি সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেন তাহলে আমি হয়তো আমার দুটি হাতে কৃত্রিম হাত লাগাতে পারি।

যার জন্য অনেক টাকার প্রয়োজন। কৃত্রিম হাত দুটি হলে হয়তো আমি আবার আমার কর্মস্থলে ফিরে যেতে পারবো এবং আমার পরিবারকে নিয়ে কিছুটা হলেও সুখে থাকতে পারবো।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Theme Created By ThemesWala.Com
error: Content is protected !!