Logo

চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে ঢাকার উদ্দেশ্য আম পরিবহনে “স্পেশাল ম্যাংগো ট্রেন”এর যাত্রা শুরু

ফয়সাল আজম অপু, বিশেষ প্রতিনিধিঃ
চাঁপাইনবাবগঞ্জ রেলষ্টেশন থেকে ঢাকার উদ্দেশ্য শুক্রবার (৫ জুন) বিকেল ৪ টায় যাত্রা শুরু করেছে মালবাহি স্পেশাল ম্যাংগো ট্রেন। এই উপলক্ষে চাঁপাইনবাবগঞ্জ রেলস্টেশনে ট্রেনটিতে আম উঠিয়ে আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক এমপি মোঃ আব্দুল ওদুদ, নারী সংসদ সদস্য ফেরদৌসী ইসলাম জেসী ও জেলা প্রশাসক এজেডএম নূরুল হক।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সার্কেল) ইকবাল হোছাইন, পশ্চিমরেলের বিভাগীয় বাণিজ্যিক কর্মকর্তা ফুয়াদ হোসেন আনন্দ, চাঁপাইনবাবগঞ্জ চেম্বার এ্যান্ড কর্মাস এর সভাপতি মোঃ এরফান আলী, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আলহাজ্ব মোঃ রুহুল আমিন, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ নজরুল ইসলাম, গ্রামীণ ট্রাভেলস এর চেয়ারম্যান মোঃ মোখলেসুর রহমান, শিবগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সৈয়দ নজরুল ইসলাম, সদর থানার ওসি জিয়াউর রহমান, জেলা আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ, রেলের কর্মকতারাসহ স্থানীয় আমচাষি ও ব্যবসায়ীরা।

প্রথমদিন এক হাজার কেজি আম চাঁপাইনবাবগঞ্জ রেল স্টেশন থেকে বুক করা হয়। মোট ৬টি মালবাহি গাড়ির প্রতিটি ওয়াগনে ৪৫ হাজার কেজি আম ও বিভিন্ন শাকসবজি, ফলমূল, ডিমসহ অন্যান্য কৃষিজাত পণ্য ক্যারেটের মাধ্যমে বহন করতে পারবে ব্যবসায়ীরা।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ রেলওয়ে ষ্টেশন মাস্টার মোঃ মনিরুজ্জামান জানান, চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে কেজি প্রতি আমের ভাড়া ১ টাকা ৩০ পয়সা নির্ধারণ করা হয়েছে। ট্রেন ছাড়ার আধা ঘন্টার পূর্ব মুহুর্ত পর্যন্ত মালামাল বুকিং দিতে পারা যাবে।
তিনি আরও জানান, চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে ঢাকাগামী ট্রেনটির নাম হবে ‘ম্যাংগো স্পেশাল ট্রেন-২’। আর ঢাকা থেকে চাঁপাইনবাবগঞ্জ ফেরার পথে নাম হবে ‘ম্যাংগো স্পেশাল ট্রেন-১’।

ট্রেনটি সপ্তাহে প্রতিদিন চলাচল করবে। প্রতিদিন চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে বিকেল ৪টায় ছেড়ে যাবে। রাজশাহী পৌঁছাবে ৫টা ২০ মিনিটে। এখানে ৩০ মিনিট থেমে ৫টা ৫০ মিনিট মিনিটে ট্রেনটি যাত্রা শুরু করবে। এরপর ট্রেনটি ঢাকায় পৌঁছাবে রাত ১টায়।
অপরদিকে ঢাকা থেকে ট্রেনটি রাত ২টা ১৫ মিনিটে ছেড়ে আসবে। রাজশাহী পৌঁছাবে সকাল ৮টা ৩৫ মিনিটে। এখানে ২০ মিনিট থেমে ট্রেনটি চাঁপাইনবাবগঞ্জের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাবে।

পৌঁছাবে সকাল ১০টা ১৫ মিনিটে। ট্রেনটিতে মোট ছয়টি ওয়াগন থাকবে। প্রতিটি ওয়াগনে ৪৫ হাজার কেজি আম নেয়া যাবে। তবে শুধু আম নয়, সকল প্রকার শাকসবজি, ফলমূল, ডিমসহ কৃষি পণ্য, বাড়ির ফর্ণিচার এবং রেলওয়ের আইনে পার্সেল হিসেবে বহনযোগ্য সকল সামগ্রী বহন করা হবে।
স্পোশাল এ ট্রেনটি চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে ছেড়ে এসে আমনূরা বাইপাস, কাঁকনহাট, রাজশাহী, সরদহ, আড়ানি ও আব্দুলপুর বাইপাস স্টেশনে থামবে।

এসব স্থানে আমসহ পার্সেল পণ্য ট্রেনে তোলা হবে। টাঙ্গাইল, মির্জাপুর, কালিয়াকৈর, জয়দেবপুর, টঙ্গী, বিমানবন্দর, ক্যান্টনমেন্ট, তেজগাঁও এবং কমলাপুর স্টেশনে ট্রেনটি থামবে। ফেরার পথে ট্রেনটি তেজগাঁও, টঙ্গী, টাঙ্গাইল, সিরাজগঞ্জ, চাটমোহর এবং রাজশাহী স্টেশনে থামবে। তবে যাত্রাপথে কোথাও সাধারণ যাত্রী এ ট্রেনে তোলা হবে না।
প্রসঙ্গত: চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে বনলতা টেনটি চালু করার সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চাঁপাইনবাবগঞ্জের আম ঢাকায় নিয়ে যাবার জন্য ম্যাংগো স্পেশাল ট্রেন চালুর প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Theme Created By ThemesWala.Com
error: Content is protected !!