Logo
শিরোনাম :
ঝিকরগাছায় কৃষিতে উৎপাদন বাড়িয়ে দেশকে এগিয়ে নিতে কৃষকের অভাবনীয় সাফল্য -উপপরিচালক রানীশংকৈলে পৌর নির্বাচনে মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ পঙ্গু শাহাবুদ্দিনের পরিবারের মাঝে অর্থ ও খাদ্য সামগ্রী নিয়ে উদ্ভাবক মিজান আশুলিয়া ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডে মোহাম্মদ আলী মেম্বারের পক্ষ থেকে শীতবস্ত্র বিতরণ ঈশ্বরদীতে রীড একাডেমিক কোচিং সেন্টারের আয়োজনে মেধাবী শিক্ষার্থীদের সম্মাননা প্রদান উপকূলীয় ক্রীড়াপ্রেমিক কর্তৃক নাইট গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের ২য় রাউন্ডের ১ম খেলা সম্পন্ন চিলমারীতে ৩শতাধিক শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের দু’জন শিক্ষার্থীর অনশন ভঙ্গ করান খুবি উপাচার্য নাইক্ষ্যংছড়িতে দুইটি কালভার্টের মাঝে বন্দী দুইটি গ্রাম চাঁপাইনবাবগঞ্জে ৪২তম বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সপ্তাহ এবং বিজ্ঞান মেলার উদ্বোধন

জয়নাল আবেদীন,নিজস্ব প্রতিবেদক:একটু বৃষ্টি হলে পথ চলা দায়। নিজ গ্রাই তেমন ভালো কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। বর্ষায় কাঁদা টপকিয়ে অন্যাত্রে যেতে হয় শিক্ষার্থীদের। দীর্ঘদিন জনপ্রতিনিধি ও বিভিন্ন সরকারি প্রতিষ্ঠানে ধরনা দিয়ে আশ্বাস না মেলায় উপায়ান্তর না পেয়ে নিজেদের অর্থায়ন ও শ্রমে কাঁচা রাস্তা ইট বসানোর মহতি উদ্যোগ নিয়েছে গ্রামবাসী।

রবিবার সকাল থেকে ঝিকরগাছা শংকরপুর ইউনিয়নের বড়পোদাউলিয়া গ্রামবাসী বর্ষায় কাঁদা থেকে বাঁচতে এ কাজ শুরু করে। প্রায় এক কিলোমিটারের এ রাস্তাটি ইট বসিয়ে যাতায়াতের উপযোগী করবে তারা। বাজেট এক লক্ষ বিশ হাজার টাকা। গ্রামের রাজনৈতিক,সমাজ সেবক,জনপ্রতিনিধি, ছাত্র, কৃষকসহ অর্ধ শতাধিক লোক স্বেচ্ছায় এ কাজ করেছেন।

বড়পোদাউলিয়া গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য ও আওয়ামীলীগ নেতা জাহান আলী জানান, বড়পোদাউলিয়া গ্রামের স্কুল মোড় থেকে দক্ষিন দিকের এ রাস্তা দিয়ে প্রতিদিন ১০০/১৫০ শ লোকের যাতায়াত। বড়পোদাউলিয়া গ্রামে একটি মাত্র মাদ্রাসা যেটি শিক্ষার্থীরা যাতায়াত করে এ রাস্তা দিয়ে।

গ্রামের এ রাস্তাটিতে বর্ষা মৌসুমে খুব কাঁদা হয়। দীর্ঘদিন যাবৎ এলাকার জনপ্রতিনিধিসহ বিভিন্ন সরকারি দপ্তরে বড়পোদাউলিয়া টু জেকাঠি বাঁকুড়া রাস্তাটি যাতায়াতের উপযোগী করার জন্য যোগাযোগ করেছেন।বাঁকুড়া থেকে বড়পোদাউলিয়া গ্রামে আসতে প্রায় এক কিলোমিটার রাস্তা পাকা হলেও এক কিলোমিটার থাকে পড়ে।যেটি আদৌ সংস্কার করার কোন উদ্যোগ দেখছে না। তাই তারা নিজেরাই রাস্তার কাজের উদ্যোগ নিয়েছে। হয়তো বেশি মজবুত করে তারা কাজটি করতে পারবেন না।তবে মানুষ অনর্ন্ত কাঁদার হাত থেকে কিছুটা হলেও রক্ষা পাবে বলে তিনি জানান।

এর আগে বড়পোদাউলিয়া টু ছোটপোদাউলিয়া কাঁদা মাখা প্রায় চার কিলোমিটার রাস্তায় ইটের সলিং বসিয়ে এক দৃষ্টান্ত স্থাপন করে ছিলো বড়পোদাউলিয়া গ্রামবাসি। যে রাস্তা আজ শতশত মানুষ সহ ভ্যান,ইজিবাইক, আলম সাধু, নসিমন, ছোট ছোট পিকাপ চলাচল করছে।

বড়পোদাউলিয়া গ্রামের ইউপি সদস্য

[contact-form][contact-field label=”Name” type=”name” required=”true” /][contact-field label=”Email” type=”email” required=”true” /][contact-field label=”Website” type=”url” /][contact-field label=”Message” type=”textarea” /][/contact-form]

এরকম একটি মহতি উদ্যোগের কথা শোনার পর স্বেচ্ছা শ্রমে আমিও অর্ন্তর ভুক্ত হয়েছি।গ্রামের বাসিন্দারা নিজ অর্থায়নে ও শ্রমে রাস্তার কাজ করছেন। রাস্তাটি দিয়ে বর্ষা মৌসুমে যাতায়াত করা যায় না। তাই তারা বর্ষা মৌসুমের আগে নিজেরাই রাস্তার কাজ করবেন বলে জানান। ইউনিয়ন পরিষদের মাধ্যমে এ রাস্তাটি দ্রুত মেরামতের চেষ্টা করবেন বলে আশ্বাস দেন তিনি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Theme Created By ThemesWala.Com
error: Content is protected !!