Logo
শিরোনাম :
ঠাকুরগাঁওয়ে ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্টের উদ্বোধন গাবুরা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মিজানের নির্বাচনী পথসভা অতিরিক্ত ডিআইজি র‍্যাব-৪ এর অধিনায়ক দ্বিতীয়বারের মতো করোনা পগেটিভ কলারোয়ায় গৃহের নির্মাণ উদ্বোধন করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক)বদিউজ্জামান নাইক্ষ্যংছড়িতে ২দিন ব্যাপী নিউট্রিশন সেনসেটিভ প্রোগ্রামিং প্রশিক্ষণ রাণীশংকৈলে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য সম্পর্কে ধৃষ্টতাপূর্ণ বক্তব্যের প্রতিবাদে যুবলীগের মানববন্ধন গাবুরা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মিজানের নির্বাচনী পথসভা শার্শায় কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের আয়োজনে মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত বাকেরগঞ্জে মনোনয়ন ফরম জমা দিলেন মেয়র প্রার্থী লোকমান হোসেন ডাকুয়া কেশবপুরে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সপ্তাহ শুরু

ঝাল, পিঁয়াজ, চাউলের পরে আলুর দামে আগুন

জসিম উদ্দিন, বিশেষ প্রতিনিধি : যশোরের শার্শায় ঝাল, পিঁয়াজ ও চাউলের পরে এবার অস্বাভাবিক ভাবে আলুর মূল্য বৃদ্ধি পেয়েছে। খুঁচরা বাজারে প্রতি কেজি আলু বিক্রি হচ্ছে ৫০ টাকা। যা বিগত বছরগুলো থেকে চলতি বছরে আলুর মূল্য বৃদ্ধির রেকর্ড ছাড়িয়ে গেছে বলে মনে করেন ক্রেতা বিক্রেতা সহ সংশ্লিষ্টরা।

যার ফলে সব ধরনের সবজির পাশাপাশি আলুর মূল্য বৃদ্ধিতে নাকাল হয়ে পড়েছেন নিম্ন আয়ের মানুষ। আড়তদাররা বলছেন হিমাগার থেকেই বেশি দামে আলু কিনতে হচ্ছে তাদের।

উপজেলার বিভিন্ন পাইকারি ও খুঁচরা বাজার ঘুরে দেখা যায়, আলু সাদা হোক বা লাল, গোল কিংবা লম্বা সব ধরনের আলুর মূল্য পাইকারিতে বিক্রি হচ্ছে ৪৪ টাকা থেকে ৪৫ টাকা। যা খুঁচরা বাজারে গিয়ে বিক্রি হচ্ছে ৫০ টাকা কেজি।

বাজার করতে আসা আসাদুল ইসলাম বলেন, ৮০ টাকা কেজির নিচে সবজি মেলা ভার। তার উপর আলুর কেজি ৫০ টাকা। এমন অস্বাভাবিক আলুর দাম জীবনে দেখিনি।

ষাটোর্ধ বৃদ্ধ রেজাউল ইসলাম নামে আইসক্রিম বিক্রেতা বলেন, আমরা নিম্ন আয়ের মানুষ। সবজির আকাশ ছোঁয়া দামে এমনিতেই নাকানিচুবানি খাচ্ছি। ডাল আলু কিনে কোনমতে দিন কাটিয়ে দেব তারও উপায় নেই।

সাধারণত এই সময় আলুর দাম থাকে ২০ টাকা থেকে ২৫ টাকা। মাছ মাংসের দাম স্বভাবিক থাকলেও সবজির পাশাপাশি হাটছে আলু।

আলুর লাগামহীন দামের আগুনে ক্রেতা সাধারণ পুড়ে খাক হলেও ঠোঁটের কোনে মৃদু বাঁকা হাসি দিচ্ছে আলু চাষি, হিমাগার কতৃপক্ষ এবং ব্যবসায়ী সিন্ডিকেটের সদস্যরা।

নাভারণ বাজারের আলুর পাইকারি আড়তদার সলেমান মন্ডল ও শামছুর রহমান জানান, সব ধরনের ব্যবসায় সিন্ডিকেট থাকে। দূরদূরান্ত থেকে আলু বেশি দামে কিনে আনতে হচ্ছে। তাছাড়া স্থানীয় ভাবে যে সমস্ত কোল্ডস্টোর বা হিমাগার আছে সেখানেও আলুর মূল্য পাইকারিতে অনেক বেশি।

দেশে করোনাকালীন ভয়াবহ পরিস্থিতির শুরু থেকে এখন পর্যন্ত বাজার ব্যবস্থা অসহনীয়। তার উপর আম্পান ঝড়, আর অতি বৃষ্টিতে দেশের বিভিন্ন অঞ্চল প্লাবিত হওয়ায় সবজি সহ সব ধরনের পণ্যের মূল্য বৃদ্ধি পেয়েছে। রয়েছে সিন্ডিকেটের কারসাজি। এ অবস্থা কিভাবে স্বাভাবিক হবে তা জানা বা বলার বাইরে।

সব ধরনের সবজি সহ ঝাল, পিঁয়াজ, আলুর মূল্য নিম্ন আয়ের মানুষের ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে আনতে দ্রুত ভাবে প্রয়োজন বাজার মনিটরিং সহ কতৃপক্ষের কঠোর নজরদারি।

তা না হলে দারিদ্র্যতার কষাঘাতে দুমড়ে মুচড়ে যাওয়া নিম্ন আয়ের মানুষের দ্রব্যমূল্যের চাপে নিঃশব্দ আত্মচিৎকার জবাবদিহিতায় ফেলবে বিবেকহীন বিবেককে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Theme Created By ThemesWala.Com
error: Content is protected !!