Logo
শিরোনাম :
বগুড়ায় ফেসবুকে নারী চিকিৎসকে উত্যক্ত করায় যুবক গ্রেপ্তার রংপুরে অপহরণের ৬ ঘণ্টা পর স্কুলছাত্রী উদ্ধার কলারোয়াতে মুখ চেপে ধরে শিশুকে বলৎকার,রক্তক্ষরণ অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি দলীয় শৃংঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে রংপুর জেলা ছাত্রদলের সভাপতি হিজবুলকে অব্যাহতি আশাশুনিতে এসিল্যান্ড শাহীন সুলতানার ভ্রামমাণ আদালত পরিচালনা দৌলতপুরে আদালতের আদেশ অমান্য করে অন্যের জমিতে বসতি নির্মানের অভিযোগ বরগুনায় বসতঘর এবং নয়টি দোকান আগুনে ছাই বাঁশখালীতে বসতঘর ভাংচুর ও সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত গাজীপুরা লিফটের নিচে এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার চাঁপাইনবাবগঞ্জে বৃষ্টি না হওয়ায় আম উৎপাদনের শঙ্কা

রংপুরের পীরগঞ্জের চার ইউনিয়নে কান্নার আহাজারি সড়ক দুর্ঘটনায়একসঙ্গে ১৭ নিহত

আফরোজা সরকার, রংপুরঃ
রংপুরের পীরগঞ্জের চার ইউনিয়নে স্বজন হারাদের কান্নার আহাজারিতে ভারী উঠেছে আকাশ বাতাশ। পুরো এলাকা জুড়ে নেমে এসেছে শোকের ছায়া। কান্নার রোল পড়েছে গ্রামে গ্রামে। চলছে সন্তান হারা মায়ের আহাজারির আত্মনাদ। বেঁচে থাকার একমাত্র অবলম্বন মাকে হারিয়ে বাকরুদ্ধ পিতৃহীন ছেলেও। পীরগঞ্জের পৌর সভা ,বড়মজিদপুর, চৈত্রকোল, মিঠিপুর ইউনিয়নে চলছে শোকের মাতম। তাদের স্বজনরা কবর খুরে লাশের অপেক্ষা করছেন।গতকাল শনিবার সকাল পৌনে ৯টার দিকে পীরগঞ্জ উপজেলার রামনাথপুর ইউনিয়নের বড় রাজারামপুর গ্রামে গিয়ে দেখা যায়, নিহতদের স্বজনরা কবর খোঁড়া খুঁড়িতে ব্যস্ত। কেউ করছেন বাঁশ কাটাকাটি। ঘরে ঘরে চলছে কোরআন তিলাওয়াত। চারদিকে শোকাবহ পরিবেশ। লাশের অপেক্ষায় থাকা মানুষগুলোর চোখ তখনও অশ্রুসিক্ত। রাতভর আহাজারি করতে করতে এখন তারা শোক জানানোর ভাষাই যেন হারিয়ে ফেলেছেন।

গতকাল শুক্রবার (২৬ মার্চ) দুপুর পৌনে ২টার দিকে রাজশাহীর কাটাখালীতে হানিফ পরিবহনের বাসের সঙ্গে মাইক্রোবাসর মুখোমুখি সংঘর্ষে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে আগুনে পুড়ে রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলার ১৭ জন নিহত হয়েছেন। তারা পীরগঞ্জ থেকে মাইক্রোবাসে করে রাজশাহীতে ঘুরতে যাচ্ছিলেন।  পীরগঞ্জ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সরেস চন্দ্র  জানান, দুর্ঘটনার পর মাইক্রোবাস থেকে ১১ যাত্রীর পোড়া মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

আরও দগ্ধ ছয়জনকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিলে তাদের মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক। মাইক্রোবাস থেকে উদ্ধার ১১ মরদেহের কাউকে চেনা যাচ্ছে না। তবে এর মধ্যে পাঁচজন পুরুষ, চারজন নারী এবং দুজন শিশু বলে শনাক্ত করেছে পুলিশ। অন্যদিকে রামেক হাসপাতালে মারা যাওয়া ছয়জনের মধ্যে দুজন পুরুষ, দুজন নারী ও দুই শিশু। তবে মাইক্রোবাসে থাকা সবার মৃত্যু হয়েছে বলে জানান।নিহতরা হলেন- রংপুরের পীরগঞ্জের চৈত্রকোল ইউনিয়নের বড় রাজারামপুর গ্রামের ব্যবসায়ী সালাহউদ্দিন (৩৬), তার স্ত্রী সামছুন্নাহার (২৮), ছেলে সাজিদ (৭), মেয়ে সাফা (৪), সামছুন্নাহারের বড় বোন কামরুন্নাহার (৪১), রামনাথপুর ইউনিয়নের বড় মজিদপুর গ্রামের পার্টস ব্যবসায়ী ফুল মিয়া (৪০), তার স্ত্রী নাজমা (৩৫), মেয়ে সাবিয়া (৪), মেয়ে সুমাইয়া (৮), ছেলে ফয়সাল (১৩), রায়পুর ইউনিয়নের দ্বাড়িকাপাড়া গ্রামের মোখলেছার (৪৫), তার স্ত্রী পারভীন (৩৫), ছেলে পাভেল (১৯), মিঠিপুর ইউনিয়নের দূরামিঠিপুর দক্ষিণপাড়ার শহিদুল মিয়া (৪৫), পৌরসভার প্রজাপাড়ার তাজুল করিম ভুট্টু (৪৫), তার স্ত্রী মুক্তা বেগম (৩৫) ও ছেলে ইয়াসিন (১৪)। রাজশাহী থেকে ছেড়ে যাচ্ছিল হানিফ পরিবহনের যাত্রীবাহী বাস। কাটাখালী এলাকায় মাইক্রোবাসটিকে ধাক্কা দেয় বাসটি। এতে মাইক্রোবাসের গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ হয়ে আগুন লেগে এ হতাহতের ঘটনা ঘটে বলে ওসি জানান।
বড়রাজা রামপুর গ্রামের নিহত সালাহউদ্দিনের চাচাতো ভাই নুরুল ইসলাম বলেন, শুক্রবার ভোর সাড়ে ৬টার দিকে স্ত্রী-তিন সন্তান ও বড় শ্যালিকাকে সঙ্গে নিয়ে মাইক্রোবাসে করে রাজশাহীতে ঘুরতে যান সালাহউদ্দিন। ওই মাইক্রোবাসে আরও ১৩ জন যাত্রী ছিল। তারা সবাই পীরগঞ্জের বাসিন্দা।
বড় মজিদপুরে নিহত পার্টস ব্যবসায়ী ফুল মিয়ার বাড়িতে গিয়ে দেখা যায়, পরিবারের উপার্জনক্ষম ফুল মিয়াকে অকালে হারিয়ে শোকে কাতর হয়ে পড়েছেছে পুরো পরিবার। ফুল মিয়ার বৃদ্ধা মা সাহিদা খাতুনসহ পরিবারের লোকজনদের আহাজারিতে কান্না করছে গ্রামের সাধারণ মানুষরাও।ফুল মিয়ার ছোট ভাই সুজন মন্ডল  বলেন, কোনো দিনও ভাবি নি একসঙ্গে পরিবারের পাঁচজনকে হারাবো। ভাই, ভাবি, ভাতিজা, ভাতিজি সবাই আমাদেরকে ছেড়ে চলে গেল। বড় ভাইয়ের মৃত্যুতে আমাদের পরিবারে উপার্জনক্ষম আর কেউ থাকলো না। আগে বাবাকে হারিয়েছি। আজ ভাইকে হারিয়ে যেন সব কিছুই হারালাম।
পীরগঞ্জ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সরেস চন্দ্র বলেন, দুর্ঘটনায় নিহত ১৭ জনের মরদেহ রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে রয়েছে। এদের মধ্যে ১১ জনের মরদেহ পুড়ে অঙ্গার হয়ে গেছে। নিহতদের পরিবার থেকে অনেকেই রাজশাহীতে মরদেহ গ্রহণ করতে গিয়েছেন। কিন্তু ডিএনএ নমুনা নিয়ে মরদেহ শনাক্ত করাসহ আইনি প্রক্রিয়া শেষ করতে দেরি হচ্ছে। এসব মরদেহ পীরগঞ্জে কখন আনা হবে, তা এখন বলা যাচ্ছে না।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Theme Created By ThemesWala.Com
error: Content is protected !!