Logo
শিরোনাম :
চুনারুঘাট উপজেলা মডেল মসজিদ নির্মাণ কাজে অনিয়ম কতৃপক্ষের দৃষ্টি প্রয়োজন আশাশুনিতে বিদ্যালয়ের মাঠ ভরাট কার্যক্রম পরিদর্শন করলেন উপজেলা আ’লীগের সাধা: সম্পাদক শম্ভুজিত মন্ডল চাঁপাইনবাবগঞ্জের মহারাজপুরে ইয়াবা সহ ১ জনকে আটক করেছে র্র্যাব কক্সবাজারের উখিয়ায় শালিশী বৈঠকে সন্ত্রাসী হামলায় আওয়ামী পরিবারের ১০ জন আহত চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে গত বছরের ন্যায় এবারও বিশেষ ট্রেন “ম্যাংগো স্পেশাল” চলবে মাদারীপুরে শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালিত বাঁশখালীতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালিত নওগাঁর রাণীনগরে পুলিশের সহায়তায় জীবন বাঁচল আত্মহত্যা চেষ্টাকারী শরিফের শার্শায় মেয়েকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে বাবা গ্রেফতার পঞ্চগড়ে করোনা প্রতিরোধে মাস্ক পরাতে জনসচেতনতামুলক ক্যাম্পেইন

বামনা হাসপাতালে হঠাৎ ডায়রিয়ার প্রকোপ

 

মোঃ রাসেল রানা, বরগুনা জেলা প্রতিনিধি:

বামনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটি এখন ডায়েরিয়া রোগীদের দখলে। রোগীর চাপ বৃদ্ধি পাওয়ায় বেড সংকটের কারনে রোগীরা এখন চিকিৎসা নিচ্ছেন মেঝেতে। ডায়রিয়ার কারনে প্রতিনিয়ত নতুন নতুন রোগী ভর্তি হচ্ছে হসপিটালে।
মাত্রাতিরিক্ত রোগীর চাপ বেড়ে যাওয়ায় কারনে সেবা দিতে হিমশিম খেতে হচ্ছে চিকিৎসকদের। আজ সকাল ১১টায় বামনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, ডায়েরিয়া রোগীদের জন্য নির্ধারিত কক্ষে উপচে পড়া রোগীর ভীড়। ৫০ শষ্যা বিশিষ্ট হাসপাতালটির কোথাও কোন বেড খালী না থাকায় রোগীরা ভবনের মেঝেতে চিকিৎসা নিচ্ছেন। প্রতিদিনই রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। এদিকে মাত্রাতিরিক্ত রোগী ভর্তি হওয়ায় দেখা দিয়েছে ডায়রিয়া স্যালাইনের সংকট। অনেক রোগীকে বাইরের বিভিন্ন ঔষধদের দোকান থেকে ডায়রিয়া স্যালাইন কিনতে দেখা গেছে।বামনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানাগেছে, গত ১ এপ্রিল থেকে বামনা হাসপাতালে এযাবৎ ৯৬জন ডায়েরিয়া রোগী চিকিৎসা নিয়েছেন। এদের মধ্যে বর্তমানে ভর্তি রয়েছেন ৪৮জন রোগী। এ সংখ্যা প্রতিদিনই বাড়ছে বলে দাবী করেন হাসপাতালের পরিসংখ্যান কর্মকর্তা মো. সগির হোসেন।এদিকে প্রতিদিন ডায়েরিয়ার প্রকোপ বৃদ্ধি পাওয়ায় কলেরা স্যালাইনের সংকট বৃদ্ধি পাওয়ার খবর পেয়ে সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য নাদিরা সুলতানার ব্যক্তিগত তহবিল থেকে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার কাছে ২শত পিচ স্যালাইন পৌছে দিয়েছেন। বামনা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মো. মনিরুজ্জামান বলেন, একদিকে করোনার জন্য আমরা দিশেহারা তার ওপর আবার নতুন করে ডায়েরিয়ার প্রকোপ অতিমাত্রায় বেড়ে যাওয়ায় আমরা সেবা প্রদানে হিমশিম খাচ্ছি। দক্ষিনাঞ্চলের বিভিন্ন নদী ও খালে লবন জল প্রবেশ করায় ও প্রচন্ড গরম ডায়েরিয়ার প্রকোপ বৃদ্ধি পেয়েছে। এই সংকট উত্তরণের একমাত্র পথ হলো নিরাপদ পানি ব্যবহার করা ও বেশি করে তরল খাদ্য গ্রহন করা।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Theme Created By ThemesWala.Com
error: Content is protected !!