Logo
শিরোনাম :
নাইক্ষ‌্যংছড়ি থানা পুলিশের অভিযানে ইয়াবাসহ আটক:২ খুলনা বটিয়াঘাটায় ২দিন ব্যাপি ভূমি সেবা প্রশিক্ষণ সমাপ্ত শাজাহান খান আগামীতে শেখ হাসিনারও পদত্যাগ চাইতে পারে। দোহার প্রেসক্লাব নির্বাচন: প্রতীক বরাদ্দ শার্শায় ভাই ভাই ফার্মেসির শুভ উদ্বোধন গর্জনিয়ায় বাড়ি ভাংচুর মারধোর অপহরণ ও হত্যার হুমকি আলোচনার শীর্ষে টিউবওয়েল মার্কার প্রার্থী জাকির হোসেন চৌধুরী চাঁপাইনবাবগঞ্জে বৃষ্টিতে রাস্তার বেহাল দশা; সচেতন মহলের দাবি দ্রুত সংস্কারের চাঁপাইনবাবগঞ্জের চরবাগডাঙ্গা ইউনিয়নবাসী স্বাস্থ্যকেন্দ্র থেকেও চিকিৎসাসেবা থেকে বঞ্চিত মুজিববর্ষ উপলক্ষে বিএমএসএফ’র উদ্যোগে দোহারে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচীর উদ্বোধন

স্বাস্থ্যবিধি মেনে গণপরিবহন চালানো অসম্ভব- মসিউর রহমান রাঙ্গা

আফরোজা সরকারঃ
সরকারি বিধিনিষেধ মেনে গণপরিবহন চালু রাখা সম্ভব নয় বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন সমিতির সভাপতি ও উত্তরবঙ্গ সড়ক পরিবহন সমিতির মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গা।
তিনি বলেছেন, স্বাস্থ্যবিধি মেনে আমরা গণপরিবহন চালানোর চেষ্টা করছি। কিন্তু বিধিনিষেধ মেনে গাড়ি চালানো সম্ভব হচ্ছে না। বিভিন্ন কারণে এটা অসম্ভব। সকালে ও বিকেলে স্বাস্থ্যবিধি মেনে যাত্রী পরিবহন অসম্ভব দাঁড়িয়েছে। সকালে বেশির ভাগ মানুষ অফিসে যান। এসময় সবাই তাড়াহুড়ো করে গাড়িতে উঠতে চায়।
বুধবার (২৬ মে) দুপুরে রংপুর নগরীর দক্ষিণ গুপ্তপাড়ায় জেলা মটর মালিক সমিতির কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সাথে আলাপচারিতায় মসিউর রহমান রাঙ্গা এ কথা বলেন। এসময় সমিতির সাবেক সভাপতি আবু আজগর পিন্টু, সাবেক সিনিয়র সহসভাপতি এ কে এম মোজাম্মেল হকসহ পরিবহন মালিকেরা উপস্থিত ছিলেন।

মসিউর রহমান বলেন, একটা গাড়িতে একজন ড্রাইভার, একজন হেলপার ও টিকেট কালেক্টর থাকেন। তারা তো একাই এতো যাত্রীদের সামাল দিতে পারেন না। এই সমস্যা শুরু বাসে নয়, সবখানেই একই অবস্থা। অনক সময় যাত্রীরা ধাক্কা দিয়ে গাড়ি উঠে যায়। আমরা সরকারকে বলেছি স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিতে বিআরটিএ, পুলিশ, বিজিবি, আনসারের লোকজন দিয়ে মনিটরিং করতে। আমরা তো যাত্রীদের গাড়ি থেকে জোর করে নামিয়ে দিতে পারিনা, যাত্রীরা আমাদের লক্ষ্মী। তবে আমরা শ্রমিকদের বলেছি স্বাস্থ্যবিধি মেনে গাড়ি চালানোর জন্য।
তিনি আরও বলেন, করোনায় আমাদের অনেক ক্ষতি হয়েছে। লকডাউনে ৮৭ দিন গাড়ি বন্ধ ছিল। এই বন্ধের সময়ে যে ক্ষতি হয়েছে, তা অপূরণীয়। আমরা গাড়ি না চালালে সরকারকে রাজস্ব দিতে পারব না। এজন্য সরকারের কাছে রাজস্ব মওকুফের আবেদন জানিয়েছি। সরকার থেকে আমাদের প্রণোদনা দেওয়ার কথা। প্রণোদনার টাকা হাতে পেলে প্রত্যেক জেলায় পাঠানোর ব্যবস্থা করা হবে।

মসিউর রহমান বলেন, করোনার কারণে মালিক-শ্রমিক সবাই ক্ষতিগ্রন্ত। সরকার সবাইকে প্রণোদনা দিচ্ছেন। একারণে আমরাও প্রণোদনা চেয়েছি। সারাদেশে প্রায় ১২ লাখ গাড়ি রয়েছে। আমরা সরকারের কাছে ২৫ হাজার কোটি টাকা প্রণোদনা চেয়েছি। এখন সরকার বিবেচনা করবে কমও দিতে পারে, আবার বেশিও দিতে পারেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দুরদর্শিতার কারণে দেশে করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে দাবি করে তিনি বলেন, বিশ্বে করোনাভাইরাসের ১৪টি ভ্যারিয়েন্ট পাওয়া গেছে। বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত মাত্র একটি ভ্যারিয়েন্টের টিকা দেওয়া হয়েছে। সরকার চেষ্টা করছে করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে। কিন্তু মানুষের মধ্যে সচেতনতা নেই। বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দুরদর্শিতার কারণে বিশ্বের অন্যান্য দেশের তুলনায় বাংলাদেশে করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। তবে শুধু পরিবহন বন্ধ রেখে করোনা নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব নয়। হাট-বাজার, শিল্প-কলকারখানাসহ বেশির ভাগ প্রতিষ্ঠান, সেক্টর খোলা রয়েছে। এবার ঈদে গণপরিবহন বন্ধ থাকার পরও মানুষ গ্রামে গিয়েছে।

বাংলাদেশ মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদের যুগ্ম আহবায়ক রাঙ্গা বলেন, মানুষের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধি করতে হবে। জীবনের সাথে জীবিকার ব্যবস্থা করতে হবে। সরকারের জনসাধারণের জীবিকার ব্যবস্থা করতে না পারলে মানুষ লকডাউন, স্বাস্থ্যবিধিসহ কোন বিধিনিষেধই মানবে না। আমার খাবার না থাকলে আমিতো ঘরে বসে থাকব না। পৃথিবীর সব দেশেই সরকার মানুষের জীবিকার নিশ্চিত করতে কাজ করছে। আমাদের দেশেও এটা করতে হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Theme Created By ThemesWala.Com
error: Content is protected !!