Logo
শিরোনাম :
সাতক্ষীরায় বিজিবি পুলিশের যৌথ অভিযানে ২৭ কেজি রৌপ্যের গহনা সহ আটক ২ লেমুছড়িতে সড়ক দূর্ঘটনায় হতাহতদের মাঝে আর্থিক সহায়তায় দিলেন ইউএনও সালমা ধারাবাহিক উন্নয়ন প্রতিবেদন-২ পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড, জনগোষ্টির ভাগ্য বদলে দিচ্ছে পালিত হলো কোয়ান্টাম মাতৃমঙ্গল সেবার বাৎসরিক আয়োজন চাঁপাইনবাবগঞ্জে অটোরিক্সার ধাক্কায় বাইসাইকেল আরোহী নিহত সারাদেশে সাংবাদিকদের তথ্য সংগ্রহ চলছে চাঁপাইনবাবগঞ্জে ৫ মাস পর কবর থেকে তোলা হলো মোরসালিন এর লাশ অবৈধভাবে চলছে কুন্দিপুর হীরা ব্রীকস্! প্রভাব খাটিয়ে মালিকানাধীন গাছ কাটার অভিযোগ টি-২০ বিশ্বকাপের সম্পূর্ণ সূচী প্রকাশ,২৩ তারিখে ভারত-পাকিস্তান মুখোমুখি পাটগ্রাম মডেল প্রেস ক্লাবের নতুন কমিটির অনুমোদন

চাঁপাইনবাবগঞ্জে জমে উঠেছে নারী উদ্যেক্তা মেলা, তবে পণ্যের গলাকাটা দামে নাজেহাল সাধারণ মানুষ

  • ফয়সাল আজম অপু, বিশেষ প্রতিনিধিঃ
    জমে উঠেছে মুজিব জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষে বিসিকের সহযোগিতায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ বিসিক নারী উদ্যেক্তা মেলা। এবারে এই মেলা হয়েছে ব্যতিক্রমী ও জাঁকজমকপূর্ণ। প্রথমবারের মতো এবারও মেলায় আছে বিভিন্ন বিনোদনের ব্যবস্থা। মেলায় প্যাভিলিয়ন, স্টল, শিশুদের বিনোদনমূলক রাইডস, খাবার দোকান। এই মেলায় আগত দর্শনার্থীদের বিনোদনের বাড়তি খোরাক।

কিন্তু শিশুদের বিনোদনের নামে লাগামহীন গলাকাটা বানিজ্য হচ্ছে বলে অভিযোগ সাধারণ মানুষের। মাত্র ৩/৪ মিনিট বিনোদনের জন্য ৫০ থেকে ১০০ টাকা নেওয়া হচ্ছে। যা কোন ভাবেই কাম্য নয়। এতে সাধারণ মানুষ ইচ্ছা থাকার স্বত্বেও বাচ্চাদের আবদার রাখতে না পারায় খুবই মর্মাহত। এমনকি ওই বিনোদনের পাশ দিয়ে হেঁটে গেলেও অনেক শিশুদের কান্না দেখতে হচ্ছে। প্রতিটি পন্যর দামও আকাশ চুম্বি। কিনতে হিমশিম খাচ্ছে ক্রেতা সাধারণ। তাই বাস্তবতার সাথে সামঞ্জস্য রেখে শিশুদের বিনোদনের হার ও পন্যর দাম কমিয়ে রাখার আহবান জানিয়েছেন সচেতন মহল।

আয়োজকদের প্রধান নারী উদ্যেক্তা সুলতানা ইয়াসমিন জানান, এবারের মেলায় কিছু ক্ষেত্রে বেশ ভিন্নতা এসেছে। শিশুদের জন্য মেলায় বাড়তি বিনোদনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। আনা হয়েছে উন্নতমানের ব্যতিক্রমী হরেক রকমের রাইডস। এছাড়াও রাইডস জগতে সম্পূর্ণ নতুন ছোট-বড় সকলের বিনোদনের জন্য আনা হয়েছে ওয়াটার রাইডস। মেলায় এবার খুলনা, ঢাকা, চট্টগ্রামসহ দেশের বিভিন্ন স্থানের উৎপাদিত পণ্যের সমাহার ঘটছে।

মেলায় আগত মহারাজপুর মেলার মোড় এলাকার রহিম বাদশা সান্ত নামের এক কলেজ ছাত্র বলেন, আমি ছাত্র মানুষ ভাগ্নে-ভাগ্নীর জুলুমে তাদের নিয়ে মেলায় গিয়ে চরম বে-কায়দায় পড়েছি। কারন আমার পকেটে যে পরিমাণ টাকা ছিলো, কোনো কিছু কেনাতো দুরের কথা। সবগুলো রাইডস উঠায় দুস্কর, শেষে কোনো রকম কয়েকটা রাইডসে উঠিয়ে ইচ্ছার বিরুদ্ধে তাদের ক্রন্দনরত অবস্থায় বের করে নিয়ে আশি।

মসজিদ পাড়ার জাইদুল নামে একজন রিক্সা চালক বলেন আমার সন্তান আছে ৪ জন। বড় ছেলের বয়স ১০ বৎসর। বলতে গেলে সবাই ১০ বছরের নিচে। রিক্সা চালিয়ে বাসায় ঢুকার সাথে সাথে বলে শিল্প মেলায় কখন নিয়ে যাবেন বাবা। তখন আমার মনটা খুব ছোট হয়ে যায়। সারাদিন রিক্সা চালিয়ে পাই ৩০০ থেকে ৪০০ টাকা। এই টাকা নিয়ে চাউল কিনবো নাকি অন্য বাজার কিনবো চিন্তার মধ্যে থাকি। তারপরেও প্রতিদিনের আয়ের টাকা থেকে ১০০ টাকা করে জমায়েত করে সপ্তাহব্যাপী ৭০০ টাকা দিয়ে স্ত্রীসহ সবাইকে নিয়ে শিল্প মেলায় যাই। ঢুকতে টিকেট এর মূল্য আসে ১০ জনের ১০০ টাকা। বাকী টাকা নিয়ে বাণিজ্য মেলায় ঢুকছি। ভিতরের ঢুকার সাথে সাথে ছোট্ট ছেলে দুইটি বলে বাবা আমি নৌকায় চড়বো। বাবা ওখানে দাম বেশি, আমার ততো টাকা নেই বললেই ছেলে দুইটি কান্না শুরু করে দিল। শেষ পর্যন্ত কিছু খেলনা জাতীয় জিনিস কিনে দিয়ে বাসায় ফিরছি। ওই নৌকাতে চড়তে না পেরে সারা পথে কান্না করেছিলো। আমার মনেও খুব কষ্ট পেয়েছি। দাম যদি কম থাকতো হয়তো আমার সন্তানদের ওই নৌকাতে চড়াতে পারতাম।

নয়াগোলা এলাকার স্কুল শিক্ষক নাসির উদ্দীন পরিবার নিয়ে এসেছেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ শিল্প উদ্যেক্তা মেলায় তিনি জানান, শিল্প মেলাতে শিশুদের জন্য কিছু বিনোদন মূলক খেলাধুলার ব্যবস্থা আছে। তবে সেখানে অতিরিক্ত দাম রাখা হচ্ছে। আমার ২ ছেলে মেয়ে বায়না অনুসারে ওয়াটার স্ক্রীতে গিয়ে দেখা গেছে মাত্র ৩ মিনিট বিনোদনের জন্য ১০০ টাকা দাম রাখা হচ্ছে। এছাড়া ওয়াটার বলও সর্বোচ্চ ৫ মিনিটের জন্য দাম রাখা হচ্ছে ১০০ টাকা। এছাড়া নাগর দোলা, নৌকা চড়া এবং দোলনা এবং পাম্প সিড়ি সহ সব ক্ষেত্রে বাস্তবতার চেয়ে ৩ গুণ বেশি দাম রাখা হচ্ছে। তিনি আরও জানান, আমার সামনে অনেক গ্রাম থেকে আসা মানুষ টাকার অভাবে ইচ্ছা থাকা স্বত্বেও ছেলে মেয়েদের এসব বিনোদন দিতে পারছেনা।

রানিহাটী ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য নুরুল ইসলাম বলেন, আমি শিল্প মেলায় গিয়ে ছেলে মেয়েদের ইচ্ছার কারনে বেশ কিছু খেলনাতে বাচ্চাদের অংশ গ্রহন করতে হয়েছে। তবে সেখানকার দাম একেবাবে গায়ে লাগার মত। প্রতিটি খেলনা মাত্র ৪/৫ মিনিটের জন্য, তবে দাম রাখছে ৫০/১০০ টাকা। আমার চোখের সামনে গ্রাম থেকে আসা অনেক গরীব মানুষকে দেখেছি টাকার কারনে শিশুদের বিনোদন দিতে পারছেনা। আমার মতে প্রত্যেকটা কিছুর একটি বাস্তব সম্মত দাম থাকা দরকার। শিল্প মেলায় শিশুদের বিনোদন মূলত প্রতিটির দাম অনেক বেশি, এটা কমানো দরকার।

শিশুদের বিনোদনের রাইডস গুলোর মালিক আনোয়ার হোসেন বলেন, মেলা কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্ত অনুসারে টিকিট বিক্রি করা হচ্ছে, তিনি আরও বলেন, দাম নির্ধারনে আমাদের কোন হাত নেই এগুলো সব ঢাকা থেকে আনা হয়েছে। মাঠ মালিক যেভাবে দাম নির্ধারণ করে দিয়েছে সেভাবেই আমরা বিক্রি করছি। তবে মেলা কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলেই দাম ঠিক করা হয়েছে। আর মেলা কর্তৃপক্ষ চাইলে দাম কমাতে বাধ্য হবে।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ শিল্প উদ্যক্তা মেলার সার্বিক তত্ত্বাবধানে রয়েছেন ৩ মহিলা।

সাব্বির ট্রেডার্সের স্বত্বাধিকারী সুলতানা ইয়াসমিন, আদিবা বুটিক্স এর রেজিনা আনোয়ার ও স্বপ্ন নকসীর স্বত্বাধিকারী ইমা খাতুন।

উল্লেখ্য, মেলার কারনে পানির ড্রেন বন্ধ করে দিয়েছে মেলার আয়োজক কমিটি। যার কারনে পুরাতন স্টেডিয়াম গেট সহ পুরো মার্কেটের সামনে পচাঁ, দুর্গন্ধযুক্ত পানি উপচে পড়ে সয়লাব হয়ে গেছে। মার্কেটে আগত ক্রেতা কেনাকাটা না করেই নাকে রুমাল দিয়ে ফিরে যাচ্ছে বলে অভিযোগ করেন মার্কেটের কয়কজন দোকান মালিক।

এবিষয়ে, সুলতানা ইয়াসমিন জানান, আমরা জেলা প্রশাসকের অনুমতি নিয়ে মেলা করেছি, তিনি ড্রেনের বিষয়টি অবগত। এখানে পানিতে ভেসে গেলেও আমাদের করার কিছু নেই, কোটি টাকা খরচ করেছি। আমাদের টাকা আয় করাই মূখ্য বিষয়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Theme Created By ThemesWala.Com
error: Content is protected !!