Logo
শিরোনাম :
সাতক্ষীরায় বিজিবি পুলিশের যৌথ অভিযানে ২৭ কেজি রৌপ্যের গহনা সহ আটক ২ লেমুছড়িতে সড়ক দূর্ঘটনায় হতাহতদের মাঝে আর্থিক সহায়তায় দিলেন ইউএনও সালমা ধারাবাহিক উন্নয়ন প্রতিবেদন-২ পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড, জনগোষ্টির ভাগ্য বদলে দিচ্ছে পালিত হলো কোয়ান্টাম মাতৃমঙ্গল সেবার বাৎসরিক আয়োজন চাঁপাইনবাবগঞ্জে অটোরিক্সার ধাক্কায় বাইসাইকেল আরোহী নিহত সারাদেশে সাংবাদিকদের তথ্য সংগ্রহ চলছে চাঁপাইনবাবগঞ্জে ৫ মাস পর কবর থেকে তোলা হলো মোরসালিন এর লাশ অবৈধভাবে চলছে কুন্দিপুর হীরা ব্রীকস্! প্রভাব খাটিয়ে মালিকানাধীন গাছ কাটার অভিযোগ টি-২০ বিশ্বকাপের সম্পূর্ণ সূচী প্রকাশ,২৩ তারিখে ভারত-পাকিস্তান মুখোমুখি পাটগ্রাম মডেল প্রেস ক্লাবের নতুন কমিটির অনুমোদন

ওসি প্রদীপের রাষ্ট্রীয় পুরস্কার ও পদক বাতিল চায় রাষ্ট্রপক্ষ

ইঞ্জিনিয়ার হাফিজুর রহমান খান, কক্সবাজার জেলা প্রতিনিধিঃ পুলিশের গুলিতে নিহত সেনাবাহিনীর মেজর ( অব . ) সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান হত্যা মামলায় অভিযুক্ত ওসি প্রদীপের সব রাষ্ট্রীয় পুরস্কার ও পদক বাতিলের ব্যবস্থা নিতে আবেদন জানিয়েছেন কক্সবাজার জেলা জজ আদালতের রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ফরিদুল আলম

। মামলায় যুক্তিতর্ক উপস্থাপনকালে প্রদীপের বিরুদ্ধে ২০৪ জনের অধিক নিরীহ লোককে বিচারবহির্ভূত হত্যার অভিযোগ তুলে তিনি বিচারকের কাছে মৌখিকভাবে এ দাবি জানান ।

রোববার সকাল সোয়া ১০ টায় জেলা জজ মোহাম্মদ ইসমাইলের আদালতে সিনহা হত্যা মামলার যুক্তিতর্ক শুরু হয় । সেখানে রাষ্ট্রপক্ষের যুক্তি উপস্থাপন করেন পিপি অ্যাডভোকেট ফরিদুল আলম । তার সঙ্গে অতিরিক্ত পিপি অ্যাডভোকেট মোজাফ্ফর আহমদ হেলালী , বাদীর নিয়োজিত আইনজীবী অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর ও আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট জিয়া উদ্দীন আহমদ যুক্তিতর্কে অংশ নেন ।

পিপি আদালতকে বলেন , ওসি থাকাকালে নরপিশাচের মতো আচরণ করেছেন প্রদীপ কুমার দাশ । তার অপরাধ নিয়ে কেউ কথা বলতে পারেননি । মোস্তফা খান নামে এক সাংবাদিক সংবাদ পরিবেশন করায় তাকে চরমভাবে নির্যাতন করা হয়েছে । এটাই তার অপেশাদারি আচরণের জ্বলন্ত প্রমাণ । এ বিষয়ে মোস্তফা খান আদালতে সাক্ষ্যও দিয়েছেন । ক্ষমতার অপব্যবহার করে ধর্ষণের মতো জঘন্য অপরাধের অভিযোগও রয়েছে প্রদীপের বিরুদ্ধে । এসব কারণে তার রাষ্ট্রীয় পুরস্কার ও পদক বাতিল করার দাবি জানাচ্ছি ।

পরে পিপি জানান , যুক্তিতর্ক উপস্থাপনের প্রথম দিন মামলায় অভিযুক্ত এপিবিএন সদস্য শাহজাহান , জুবায়ের ও আবদুল্লাহ আল মামুন এবং পুলিশের তিন সোর্স মিলে ৬ জনের পক্ষে যুক্তিতর্ক সম্পন্ন হয়েছে । তারা যে সিনহা হত্যায় জড়িত , আদালতে সে কথা প্রমাণ করতে সক্ষম হয়েছেন রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবীরা ।

তিনি জানান , ৮৩ জন সাক্ষীর মধ্যে ৬৫ জন সাক্ষ্য দিয়েছেন । তাদের জেরা শেষ হওয়ার পর ৬ ডিসেম্বর কার্যবিধি ৩৪২ ধারায় ১৪ জন আসামি আদালতে লিখিত বক্তব্য দেন । পরদিন অপর আসামি নন্দদুলাল লিখিত বক্তব্য উপস্থাপন করেন । সকাল পৌনে ১০ টার দিকে কঠোর নিরাপত্তায় প্রদীপসহ ১৫ আসামিকে আদালতে হাজির করা হয় ।

সোয়া ১০ টায় শুরু হয় রাষ্ট্রপক্ষের যুক্তি । ২৩ আগস্ট থেকে কক্সবাজার জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ ইসমাঈলের আদালতে সাক্ষ্যগ্রহণ এবং জেরা শুরু হয়ে ১ ডিসেম্বর শেষ হয় । যেখানে ৬৫ জন সাক্ষী সাক্ষ্য দিয়েছেন ।

উল্লেখ্য, গত ২০২০ সালের ৩১ জুলাই রাতে টেকনাফ মেরিন ড্রাইভ সড়কের শামলাপুর তল্লাশি চৌকিতে পুলিশের গুলিতে মেজর ( অব . ) সিনহা নিহত হন । এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে তিনটি ( টেকনাফে দুটি , রামুতে একটি মামলা করে । ৫ আগস্ট কক্সবাজার আদালতে প্রদীপ কুমার দাশ , লিয়াকত আলীসহ ৯ পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করেন মেজর সিনহার বড় বোন শারমিন শাহরিয়া ফেরদৌস ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Theme Created By ThemesWala.Com
error: Content is protected !!